শেষ দুই ঘন্টার চাপ সামলতে পারলোনা ব্যাংক

bazarশেয়ারবাজার রিপোর্ট: সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতায় লেনদেন শেষ হয়েছে। এদিন শুরুতে ব্যাংক খাতের ক্রয় চাপে সূচকে উত্থানে থাকলেও দুই ঘন্টা পর ৭ খাতের সেল প্রেসারে টানা নামতে থাকে সূচক। খাতগুলো হলো: সিমেন্ট, প্রকৌশল, খাদ্য ও আনুষাঙ্গিক, আইটি, বিবিধ, বস্ত্র এবং ওষুধ ও রসায়ন। এরই ধারাবাহিকতায় টানা ৪ কার্যদিবস ধরে সূচকের পতন হচ্ছে। সোমবার সূচকের পাশাপাশি কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। তবে আগের দিনের তুলনায় টাকার অংকে লেনদেন কিছুটা বেড়েছে। আজ দিন শেষে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৪৯১ কোটি টাকা।

এদিকে আজ দিনশেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৭ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৬১৯৬ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৩৭৫ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ২২৪৬ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৩৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১১৬টির, কমেছে ১৭০টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৭টি কোম্পানির শেয়ার দর। যা টাকায় লেনদেন হয়েছে ৪৯১ কোটি ২৪ লাখ ৫৫ হাজার টাকা।

এর আগে রোববার ডিএসই ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৪৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৬২০৪ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১৩৭৯ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ২২৫০ পয়েন্টে। ওইদিন লেনদেন হয় ৪৩২ কোটি ৮৬ লাখ ৬৮ হাজার টাকা। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৫৮ কোটি ৩৭ লাখ ৮৭ হাজার টাকা।

এদিকে দিনশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সিএসইএক্স ৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১১ হাজার ৬০০ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৪৯টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১০২টির কমেছে ১২১টির ও দর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টির। যা টাকায় লেনদেন হয়েছে ২২ কোটি ৮৬ লাখ ৬৪ হাজার টাকা।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

*

*

Top