সাপ্তাহিক বাজার: ৭০ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার বিক্রি করেছেন বিনিয়োগকারীরা

শেয়ারবাজার রিপোর্টঃ সপ্তাহিক ব্যবধানে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচক নেতিবাচক প্রবণতা বিরাজ করছে। সপ্তাহজুড়ে লেনদেন হওয়া ৫ কার্যদিবসের মধ্যে ৩দিনই কমেছে সূচক। বাকি দুই কার্যদিবস কমলেও এর মাত্রা ছিলো সামান্য। এরই ধারাবাহিকতায় দেশের উভয় শেয়ারবাজারে প্রায় সব ধরনের সূচক কমেছে। এদিকে সূচকের পাশাপাশি ৬৯.৬২ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে। আর গত সপ্তাহে লেনদেনের পরিমান কিছুটাও কিছুটা কমেছে। আলোচিত সপ্তাহটিতে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৮৩৭ কোটি টাকা।

সাপ্তাহিক বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, সপ্তাহশেষে ডিএসই ব্রড ইনডেক্স বা ডিএসইএক্স সূচক কমেছে ০ দশমিক ৯২ শতাংশ বা ৫৭ দশমিক ০৯ পয়েন্ট। সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসই৩০ সূচক কমেছে ০ দশমিক ৫৫ শতাংশ বা ১২ দশমিক ৩৮ পয়েন্ট। অপরদিকে, শরীয়াহ বা ডিএসইএস সূচক বেড়েছে ০ দশমিক ৮৯ শতাংশ বা ১২ দশমিক ৩৭ পয়েন্টে। আর সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে তালিকাভুক্ত মোট ৩৩৯টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৮৩টি কোম্পানির। আর দর কমেছে ২৩৬টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৯টির। আর লেনদেন হয়নি ১টি কোম্পানির শেয়ার। এগুলোর ওপর ভর করে গত সপ্তাহে লেনদেন মোট ১ হাজার ৮৩৭ কোটি ৪৪ লাখ ৩৬ হাজার ৭৯৮ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। তবে এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয় ২ হাজার ২৩১ কোটি ৫০ লাখ ৯৪ হাজার ৭৭৩ টাকার। সেই হিসাবে সমাপ্ত সপ্তাহে লেনদেন কমেছে ৩৫৮ কোটি ৬ লাখ ৬৫ হাজার ৯৭৫ টাকা বা ১৬ দশমিক ০৫ শতাংশ।

আর সমাপ্ত সপ্তাহে ‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৮৬ দশমিক ২৭ শতাংশ। ‘বি’ ক্যাটাগরির কোম্পানির লেনদেন হয়েছে ৭ দশমিক ০২ শতাংশ। ‘এন’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ২ দশমিক ৮৮ শতাংশ। ‘জেড’ ক্যাটাগরির লেনদেন হয়েছে ৩ দশমিক ৮৩ শতাংশ।

সপ্তাহশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সেচঞ্জের (সিএসই)সার্বিক সূচক সিএসইএক্স ১৪৪ দশমিক ৫৪ পয়েন্ট বা ১.২৫ শতাংশ কমে সপ্তাহ শেষে দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ৩৯১ পয়েন্টে। আর সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে হাত বদল হওয়ার ২৮২টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দর বেড়েছে ৫৫টির, কমেছে ২১২টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ১৫টির দর। এগুলোর ওপর ভর করে বিদায়ী সপ্তাহে ১১৪ কোটি ২১ লাখ ৯ হাজার ২৯৭ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

*

*

Top