সোনালী ব্যাংকের জিএম মিজানুরকে দুদকে তলব

dodok-sonali-bank2অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ অনুসন্ধানে রাজধানীর মতিঝিলে অবস্থিত সোনালী ব্যাংকের স্থানীয় কার্যালয়ের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) এ টি এম মিজানুর রহমানকে তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

রোববার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয় থেকে কমিশনের সহকারী পরিচালক মাসুদুর রহমান তাকে এ তলবের নোটিস দেন। আগামী ১৮ জানুয়ারি তাকে দুদক কার্যালয়ে হাজির থাকতে বলা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এ টি এম মিজানুর রহমান ২০১১ সালের ফেব্রুয়ারি মাস থেকে ২০১৪ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত সোনালী ব্যাংকের স্থানীয় কার্যালয়ের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) পদে কর্মরত ছিলেন। এ সময় তিনি বৈদেশিক মুদ্রা বাণিজ্য কার্যক্রম দেখাশুনা করতেন। প্রতিষ্ঠানটির এ ক্ষমতার অপব্যবহার করে শত শত কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জন করেন তিনি। ডিজিএম হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে ভুয়া কাগজপত্র ও জামানতবিহীন সাত থেকে আট হাজার কোটি টাকা ঋণও দেন।

সূত্র আরও জানায়, ঋণ দিতে বিভিন্ন সহযোগিতা ও দেওয়ার পর এ সব ঋণপ্রাপ্ত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে অবৈধ সুবিধা দিয়ে তিনি মালিক হয়েছেন শত শত কোটি টাকার। রাজধানীর বনানীতে বিলাসবহুল বাড়ি, উত্তরায় পাঁচ কোটি টাকা মূল্যের জমি, ১০ কোটি টাকা মূল্যের দুটি গাড়ি ছাড়াও তিনি নামে-বেনামে বিপুল পরিমাণ অবৈধ সম্পদ গড়েছেন বলে দুদকের কাছে অভিযোগ রয়েছে।

সোনালী ব্যাংক সূত্র জানায়, সম্প্রতি এ টি এম মিজানুর রহমান ব্যাংকের জিএম পদে পদোন্নতি পেয়েছেন। এই পদেও তাকে বৈদেশিক বাণিজ্য দেখভালের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

আপনার মন্তব্য

Top