চীনা কনসোর্টিয়ামকে কৌশলগত বিনিয়োগকারী করার প্রস্তাব জমা: বিএসইসির কমিটি গঠন

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসেবে চীনা কনসোর্টিয়ামকে দেওয়ার প্রস্তাব পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনে (বিএসইসি) জমা দেওয়া হয়েছে। আজ সকাল ৯টায় বিএসইসিতে এ প্রস্তাবটি জমা দিয়েছে ডিএসই’র সচিব মো. আসাদুুর রহমান। এদিকে ডিএসই থেকে প্রস্তাব পাওয়ার পর এ সংক্রান্ত প্রস্তাব পর্যালোচনা করতে ৪ সদস্যের কমিটি গঠন করেছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।কমিটিকে আগামী ১০ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। চার সদস্য বিশিষ্ট কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছে বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ফরহাদ আহমেদকে। এছাড়া কমিটির সদস্য সচিবের দায়িত্ব পালন করবেন বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক মাহবুবুল আলম। বাকি দুই সদস্য হলেন- নির্বাহী পরিচালক ড. এটিএম তারিকুজ্জামান ও আনোয়ারুল ইসলাম।

এর আগে গত সোমবার দুইটি প্রস্তাব পর্যালোচনা করে সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জ এবং সেনজেন স্টক এক্সচেঞ্জকে নিয়ে গঠিত কনসোর্টিয়ামকে  কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসেবে  বেছে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলো ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ওই প্রস্তাবটি আনুষ্ঠানিকভাবে বিএসইসিতে জমা দিল ডিএসই।

গত সোমবার বোর্ড সভা শেষে ডিএসই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) কেএএম মাজেদুর রহমান সাংবাদিকদের বলেছিলেন,  সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জ এবং সেনজেন স্টক এক্সচেঞ্জকে কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসেবে পার্টনার করতে আগের সভায় যে অনুমোদন দেওয়া হয়েছিল। তা আজ ডিএসই বোর্ড সভায় অনুমোদন করা হয়। এখন যত দ্রুত সম্ভব আমরা বিএসইসিতে ডিএসইর এই প্রস্তাবনা পাঠাবো। এই প্রস্তাবের পর নিয়ন্ত্রক সংস্থা তা আইনগতভাবে যাচাই করে তাদের সিদ্ধান্ত জানাবে।

এর আগে ১০ ফেব্রুয়ারি পরিচালনা পর্ষদের সভায় সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জ এবং সেনজেন স্টক এক্সচেঞ্জকে কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসেবে পার্টনার করতে একমত পোষণ করেন। তবে তা আর প্রস্তাব আকারে বিএসইসিতে পাঠানো হয়নি।

এরপর নানা দিত থেকে অভিযোগ ওঠে যে, ডিএসইর কৌশলগত বিনিয়োগকারী নিয়ে অনিয়মের আশ্রয় নেওয়া হচ্ছে। সেখানে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি ও ভারতীয় দরদাতা প্রতিষ্ঠান ডিএসইর কৌশলগত বিনিয়োগকারী নিতে অনৈতিক চাপ প্রয়োগ করছে বলে অভিযোগ তোলে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)। পাশাপাশি এই চাপের নিন্দা করা হয়।

সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জ এবং সেনজেন স্টক এক্সচেঞ্জকে নিয়ে গঠিত কনসোর্টিয়ামটি ডিএসইর পার্টনার হতে ২২ টাকা দরে ২৫ শতাংশ শেয়ার নিতে আবেদন করে। পাশাপাশি কনসোর্টিয়ামটি ৩৭ মিলিয়ন ডলারের প্রযুক্তিগত সহযোগীতা দেওয়ার প্রস্তাবও দেয় ডিএসইকে।

তবে কনসোর্টিয়ামটি ডিমিউচ্যুয়ালাইজেশন আইন অনুযায়ী সব দিক দিয়ে এগিয়ে থাকার পাশাপাশি বেশি দর দিয়ে শেয়ার কেনার প্রস্তাব করায় ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদ তা গ্রহণ করে।

১০ টাকা অভিহিত মূল্যের প্রতিটি শেয়ারের জন্য চীনের সাংহাই ও সেনজেন স্টক এক্সচেঞ্জ ২২ টাকা দরে মোট ৯৯২ কোটি টাকার শেয়ার কিনবে। আর ডিএসইর কার্যক্রমের মানোন্নয়নে বিনামূল্যে উন্নত প্রযুক্তি সরবরাহ করবে, যার বাজার মূল্য ৩ কোটি ৭০ লাখ ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ৩০৭ কোটি টাকা।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/এমআর

আপনার মন্তব্য

Top