কর্পোরেট বন্ডে আয়কর অব্যাহতি চায় কেন্দ্রীয় ব্যাংক

Bangladesh_Bank_Logo.svgশেয়ারবাজার রিপোর্ট: বাংলাদেশের জিডিপি-তে কর্পোরেট বন্ডের অবদান খুবই নগন্য। তাই আর্থিক খাতের গুরুত্বপূর্ণ এই ইন্সট্রুমেন্টকে জনপ্রিয় এবং বহুল প্রচলিত করার জন্য বন্ডের বিনিয়োজিত আয়ের উপর আয়কর অব্যাহতি চায় কাংলাদেশ ব্যাংক।

এর জন্য সম্প্রতি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর আতিউর রহমান জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যানকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ করে চিঠি দেন।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পাঠানো এই চিঠির প্রেক্ষিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে আজ সোমবার অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন এনবিআর চেয়ারম্যান মো: নজিবুর রহমান।

চিঠিতে কর্পোরেট বন্ডের গুরুত্ব সম্পর্কে বলা হয়, একটি স্থিতিশীল সামষ্টিক অর্থনীতির নিয়ামক হিসেবে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের দীর্ঘমেয়াদি তহবিল সংগ্রহের লক্ষ্যে বন্ড ও সিকিউরিটাইজেশন একটি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ইন্সট্রুমেন্ট। ভারতসহ এশিয়ার অন্যান্য দেশের আর্থিক খাতে ইস্যুকৃত কর্পোরেট বন্ড তাদের জিডিপি’তে ইতিবাচক অবদান রাখছে (যেমন: ভারত ১১.৮০ শতাংশ, মালয়েশিয়া ৪৮.৪০ শতাংশ, ফিলিপাইন ৯.৩০ শতাংশ ইত্যাদি)। অথচ বাংলাদেশের জিডিপি’তে কর্পোরেট বন্ডের অবদান মাত্র ০.২০ শতাংশ। বাংলাদেশকে একটি মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে বন্ড ও সিকিউরিটাইজেশনের মতো দীর্ঘমেয়াদি উপাদানের ব্যাপক প্রচলন প্রয়োজন। তাই দেশে কর্পোরেট বন্ড জনপ্রিয় করা এবং একটি বিকল্প ও দীর্ঘমেয়াদি অর্থায়নের উৎস সৃষ্টির লক্ষ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক, বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি), এবিআরসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ খুবই জরুরি। আর এর জন্য কর্পোরেট বন্ডে বিনিয়োজিত আয়ের ওপর আয়কর অব্যাহতি প্রদান প্রয়োজন।

এর আগে ২০০৫ সালে এনবিআর কেন্দ্রীয় ব্যাংক ও বিএসইসি অনুমোদিত কোন প্রতিষ্ঠানের ইস্যুকৃত জিরো কুপন বন্ডে বিনিয়োগে ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত আয়কে আয়কর মুক্ত করা হয়েছিল। কিন্তু পরবর্তীতে ২০০৭ সালে এনবিআর তা বাতিল করে দেয়।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/তু

 

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top