যে কারণে হঠাৎ লেনদেন বৃদ্ধি: ৫০ মিনিটেই লেনদেন ৩২১ কোটি টাকা

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: আজ ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৫১২ কোটি ৪১ লাখ ৭৩ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে। গত এক মাসেরও বেশি সময় ধরে দৈনিক লেনদেন ৫০০ কোটি টাকা ছাড়ায়নি। গতকাল লেনদেন হয়েছিল ২৭৫ কোটি টাকা। একদিন পরই লেনদেন প্রায় দ্বিগুন বৃদ্ধি পাওয়া বিশেষ করে শেষ ৫০ মিনিটে ৩২১ কোটি টাকার লেনদেন বিনিয়োগকারীদের কিছুটা হলেও স্বস্তি এনে দিয়েছে। সূচকের ব্যাপক দরপতনে বিনিয়োগকারীরা যেখানে অস্থির হয়ে পড়েছেন সেখানে হঠাৎ এতো বেশি লেনদেন হওয়া নতুন আশা জাগিয়েছে। কিন্তু সেই আশা গুড়েবালি হয় যখন বিনিয়োগকারীরা দেখতে পেলেন ব্লক মার্কেটেই লেনদেন হয়েছে ২৬২ কোটি ৩৪ লাখ ৫ হাজার টাকা।

আজ ব্লক মার্কেটে সামিট পাওয়ারের বিপুল পরিমাণ অঙ্কের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির ৭ কোটি ২ লাখ ৩৭ হাজার ৪৯৯টি শেয়ার প্রতিটি ৩৭ টাকা করে একবার হাতবদলেই লেনদেন হয়। যার বাজার মূল্য দাঁড়ায় ২৫৯ কোটি ৮৭ লাখ ৮৭ হাজার টাকা।

অর্থাৎ ডিএসইতে মোট লেনদেনের প্রায় অর্ধেকই অবদান রেখেছে সামিট পাওয়ার। যদি ব্লকে সামিট পাওয়ারের লেনদেন বাদ দেয়া হয় তাহলে আজ ডিএসইতে লেনদেন হয় ২৫২ কোটি ৫৩ লাখ ৮৬ হাজার টাকা। এতো কম পরিমাণ লেনদেন পুঁজিবাজারে হওয়া বিনিয়োগকারীদের হতাশার মাত্রা আরো বাড়িয়ে দিচ্ছে। তাই চলমান তীব্র সংকট কাটিয়ে উঠতে অনতিবিলম্বে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) হস্তক্ষেপ কামনা করছেন বিনিয়োগকারীরা।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

Top