ভারতের শেয়ারবাজার পতনে দুই কারণ চিহ্নিত

শেয়ারবাজার ডেস্ক: ভালো নেই ভারতের শেয়ারবাজার। কিছুদিন আগেও যেখানে রেকর্ডের ছড়াছড়িতে বাজার সংশ্লিষ্টদের মিষ্টি বিতরণ ছিলো। সেখানে এখন পুরোই বিপরীত চিত্র। অনেক ভালো খবর থাকা স্বত্ত্বেও টেনে তোলা যাচ্ছে না সেনসেক্স। গত সপ্তাহে বড় মাপের উত্থান-পতন দেখল শেয়ার বাজার। মার্কিন কর্মসংস্থানে উন্নতি ও বিশ্ব বাজারের আচমকা উত্থানে প্রভাবিত হয়ে সোমবার হঠাৎ সেনসেক্স লাফিয়ে বাড়ে ৬১১ পয়েন্ট। নিফ্‌টি ১৯৫ অঙ্ক। আগের দু’বছরের মধ্যে একটি কাজের দিনে এটিই সবচেয়ে বড় উত্থান।

এত বড় উত্থান দেখে অনেকেই ভাবছিলেন, এ বার হয়তো চাকা ঘুরল। তা মনে করার কারণও ছিল। পরপর ভাল খবর আসতে শুরু করেছিল অর্থনীতির বিভিন্ন ক্ষেত্র থেকে। এ সব সত্ত্বেও উত্থান কিন্তু স্থায়ী হল না। দেশ-বিদেশ থেকে সাঁড়াশি আক্রমণে শুক্রবার সেনসেক্স ও নিফ্‌টি খুইয়েছে যথাক্রমে ৫১০ ও ১৬৫ অঙ্ক। এক দিনে ১.৮৬ লক্ষ কোটি টাকার সম্পদ মুছে যায় বাজারে নথিবদ্ধ সব শেয়ারের মোট মূল্য থেকে।

যে-দু’টি কারণকে এই পতনের জন্য দায়ী করা হচ্ছে, সেগুলি হল: প্রথমত, ট্রাম্পের হুমকিতে বাণিজ্য যুদ্ধের আশঙ্কা বৃদ্ধি পাওয়া। দ্বিতীয়ত, তেলুগু দেশম পার্টির কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা ও এনডিএ ত্যাগ ও সংসদে অনাস্থা প্রস্তাব পেশ করায় ভারতের রাজনীতিতে অস্থিরতা। পাশাপাশি, লোকসভার ৩টি গুরুত্বপূর্ণ আসনে উপনির্বাচনে বিজেপি জোট এনডিএ-র পরাজয় উসকে দেয় বিরোধী ঐক্য। এতে কিছুটা হলেও নড়বড়ে কেন্দ্রে এনডিএ সরকারের ভিত। দেশের রাজনৈতিক দলগুলি এখন দু’ভাগে বিভক্ত। এতে সরকারের সঙ্গে সংঘাতের পথও প্রশস্ত হল। বাজারের জন্য সম্ভবত এটা খুব একটা ভাল নয়। এর প্রভাবে মাঝেমধ্যেই দুর্বলতা দেখা দিতে পারে। অর্থাৎ অর্থনীতি কিছুটা ভাল করলেও বাজারে অস্থিরতা কিন্তু থেকেই যাবে।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

 

আপনার মন্তব্য

*

*

Top