ফিন্যান্সিয়াল লিটারেসি-পর্ব ১৩: বিনিয়োগ সিদ্ধান্তের বিবেচ্য বিষয়সমূহ

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করার ক্ষেত্রে বেশকিছু বিষয় গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করতে হয়। কারো কথায় বা গুজবে প্রণোদিত না হলে নিজে এ বিষয়ে জ্ঞান অর্জন করে পুঁজি বিনিয়োগ করতে হয়।

বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য বিবেচ্য বিষয়সমূহ

০১। বিগত সময়ে মূল্য পরিবর্তন পর্যালোচনা।

০২। বাজার, সেক্টর ও সিকিউরিটিজের মূল্য/আয় অনুপাত পর্যালোচনা।

০৩। বিনিয়োগের ক্ষেত্রে স্বল্প, মধ্য এবং দীর্ঘমেয়াদে পুঁজি বন্টনের মাধ্যমে পরিকল্পনা।

০৪। বিভিন্ন সেক্টর এবং ধরণের সিকিউরিটিজে বিনিয়োগের মাধ্যমে পোর্টফোলিও গঠন করে বিনিয়োগের ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা।

০৫। বিনিয়োগ সংক্রান্ত বিধি-বিধান এবং লেনদেন সংক্রান্ত নিয়ম-কানুন মেনে চলা।

 সিকিউরিটিজে বিনিয়োগের স্বর্ণসূত্র

০১। দীর্ঘমেয়াদী আর্থিক পরিকল্পনা করে বিনিয়োগ করুন।

০২। একজন অংশীদারের মত আচরণ করুন।

০৩। হালনাগাদ অর্থনৈতিক তথ্যসমূহের বিষয়ে অবগত থাকুন।

০৪। বিনিয়োগের ক্ষেত্রে এর ঝুঁকি সম্পর্কে ধারণা নিন।

০৫। বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ঝুঁকি এবং তার বিপরীতে প্রাপ্তি কি হতে পারে তা বিবেচনা করুন।

০৬। কোম্পানির ব্যবস্থাপনার উপর সজাগ দৃষ্টি রাখুন।

০৭। নিয়মিত বিনিয়োগ করুন।

০৮। গুজবে কান দিবেন না।

০৯। বিনিয়োগের পোর্টফোলিও ব্যবস্থাপনার উপর গুরুত্ব দিন ও লক্ষ্য সম্পর্কে সচেতন থাকুন।

১০। পোর্টফোলিওতে নানারকম শেয়ার রাখলে তার একটি সীমারেখা নির্ধারণ করুন।

১১। প্রতিবছর অন্তত: একবার আপনার বিনিয়োগ সিদ্ধান্তের বিষয়টি পর্যালোচনা করুন।

১২। সঞ্চয়ের মানসিকতা গড়ে তুলুন।

১৩। বিনিয়োগের ক্ষেত্রে শেয়ারের মৌলভিত্তি যাচাই করুন।

১৪। বাজারের উঠানামাতে অধৈর্য হবেন না, দীর্ঘ মেয়াদী বিনিয়োগে নজর দিন।

১৫। বিনিয়োগকারীর অধিকার সম্পর্কে সচেতন হোন।

১৬। আপনার ঝুঁকি গ্রহণের সক্ষমতা সম্পর্কে ওয়াকিবহাল থাকুন।

১৭। সঞ্চয়ের পুরোটা বিনিয়োগ করবেন না, ঋণ নিয়ে বিনিয়োগের অভ্যাস পরিহার করুন।

 

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

Top