নিরবে অশ্রু ঝরছে বিনিয়োগকারীদের: সরকারের সরাসরি হস্তক্ষেপ কামনা

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: বর্তমান বাজারের চিত্র এতোই করুণ অবস্থায় রয়েছে যা ইতিপূর্বে বাজার সংশ্লিষ্টদের চোখে দেখা যায়নি। ২০১০-২০১১ সালে যে ধস নেমেছিল তা স্ট্রোক করার মতো হলেও বর্তমানে পুঁজিবাজার মারাত্মক ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছে। ধুকরে ধুকরে মরছে পুঁজিবাজার। সেই সঙ্গে নিরবে অশ্রু ঝরাচ্ছে বিনিয়োগকারীরা। সিকিউরিটিজ হাউজ,মার্চেন্ট ব্যাংক, ডিএসই,সিএসই,বিএসইসিসহ সংশ্লিষ্ট বাজার বিশেষজ্ঞ সকলেই বাজার পতনের কোনো কারণ খুঁজে পাচ্ছে না। তারল্য সংকটে স্থবির বাজারকে তুলে ধরতে এখন সরকারকেই সরাসরি হস্তক্ষেপ করতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংক এক্সপোজার ইস্যুতে যে কালক্ষেপন করছে এতে আরো মারাত্মক ক্ষতির মুখে পড়ছে পুঁজিবাজার। তাই এ বিষয়ে জরুরি ভিত্তিতে সরকারের জরুরি ভিত্তিতে পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগি বিনিয়োগকারীরা।

আজ সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতায় লেনদেন শেষ হয়েছে। এইদিন শুরু থেকেই সেল প্রেসারে টানা নামতে থাকে সূচক। মঙ্গলবার সূচকের পাশাপাশি কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। তবে টাকার অংকে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। আজ দিন শেষে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩১১ কোটি টাকা।

এদিকে আজ দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ২০ মাসের সর্বনিম্ন লেনদেন হয়েছে। এর আগে গত ১০ জুলাই, ২০১৬ ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিলো ২০৯ কোটি ৫৪ লাখ ৯২ হাজার টাকা।

আজ দিন শেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৭৮ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৫৪৯১ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ১৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৩০৩ পয়েন্টে এবং ডিএসই ৩০ সূচক ১৮ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ২০৫৬ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৩৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৩৭টির, কমেছে ২৮২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৪টির। আর দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ৩১১ কোটি ৪৪ লাখ ৬৮ হাজার টাকা।

এর আগের কার্যদিবস অর্থাৎ রোববার ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ১০ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৫৫৭০ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১৩১৯ পয়েন্টে এবং ডিএসই ৩০ সূচক ৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ২০৭৫ পয়েন্টে। আর ওইদিন লেনদেন হয়েছিল ২২৪ কোটি ৫৩ লাখ ৬৭ হাজার টাকা। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৮৬ কোটি ৯১ লাখ ১ হাজার টাকা।

এদিকে, দিনশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সাধারণ মূল্য সূচক সিএসইএক্স ১৪১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১০ হাজার ২৩৪ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২২৭টি কোম্পানির ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ২৫টির, কমেছে ১৮৭টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৫টির। আর দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ১২ কোটি ২৭ লাখ ৩৭ হাজার টাকা।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top