তারল্য সংকট কাটাতে সিআরআর কমানোর প্রজ্ঞাপন জারি

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: বেসরকারি ব্যাংকগুলোর নগদ জমা সংরক্ষণ (ক্যাশ রিজার্ভ রেশিও বা সিআরআর) এক শতাংশ কমানোর বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর বাইরে বাংলাদেশ ব্যাংকের রেপো সুদহার বিদ্যমান বার্ষিক শতকরা ৬ দশমিক ৭৫ ভাগ থেকে ৭৫ বেসিস পয়েন্ট কমিয়ে শতকরা ৬ ভাগে পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংক এ সংক্রান্ত আলাদা দু’টি নির্দেশনা সব বাণিজ্যিক ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীর কাছে পাঠিয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনায় উল্লেখ করা হয়েছে, বর্তমানে বাংলাদেশের সব তফসিলি ব্যাংককে (শরিয়াহ ভিত্তিক ব্যাংকসহ) তাদের মোট তলবি ও মেয়াদি দায়ের ৬ দশমিক ৫ শতাংশ দ্বি-সাপ্তাহিক গড় ভিত্তিতে এবং ন্যূনতম ৬ শতাংশ দৈনিক ভিত্তিতে বাংলাদেশ ব্যাংকে নগদ জমা হিসেবে সংরক্ষণ করতে হয়। আগামী ১৫ এপ্রিল নগদ জমা সংরক্ষণের হার দ্বি-সাপ্তাহিক গড় ভিত্তিতে ৫ দশমিক ৫০ শতাংশ এবং দৈনিক ভিত্তিতে ন্যূনতম ৫ শতাংশ হবে।

এছাড়া বাংলাদেশ ব্যাংকের আরেকটি নির্দেশনায় বলা হয়েছে, বাংলাদেশ ব্যাংকের রেপো সুদহার বিদ্যমান বার্ষিক শতকরা ৬ দশমিক ৭৫ ভাগ থেকে ৭৫ বেসিস পয়েন্ট কমিয়ে শতকরা ৬ ভাগে পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, রিভার্স রেপো সুদহার বিদ্যমান বার্ষিক শতকরা ৪ দশমিক ৭৫ ভাগে অপরিবর্তিত থাকবে। এ নির্দেশনা ১৫ এপ্রিল থেকে কার্যকর হবে।

এর আগে গত রবিবার রাজধানীর একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে বাংলাদেশ ব্যাংকে জমা রাখা বেসরকারি ব্যাংকগুলোর সিআরআর  এক শতাংশ কমানো হয়। সিআরআর কমানোর ফলে প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকা বেসরকারি ব্যাংকগুলোর হাতে যাবে।

ত্রিপক্ষীয় ওই বৈঠকে গভর্নর ছাড়াও অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, অর্থসচিব মোহাম্মদ মুসলিম চৌধুরী, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব মো. ইউনুসুর রহমান, বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এস এম মনিরুজ্জামান, উপদেষ্টা এস কে সুর চৌধুরী ও বেসরকারি ব্যাংক মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকসের (বিএবি) শীর্ষ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে সিআরআর কমানোর বিষয়ে অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘বিষয়টি আগামী জুনে পর্যালোচনা (রিভিউ) করা হবে। এই সময়ের মধ্যে কী প্রভাব পড়ে, তা দেখতে হবে।’

 

শেয়ারবাজারনিউজ/আ

আপনার মন্তব্য

Top