কোটা সংস্কার আন্দোলনে পুলিশি হামলায় বিএনপির প্রতিক্রিয়া

শেয়ারবাজার ডেস্ক: শাহবাগে সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কার আন্দোলনে শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশি হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে বিএনপি।

সোমবার (৯ এপ্রিল) দুপুরে নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন,গতকাল চাকরিপ্রার্থী ও ছাত্র-ছাত্রীদের যৌক্তিক দাবি আদায়ের আন্দোলনে বিনা উসকানিতে আন্দোলকারীদের ওপর পুলিশ গতকাল তাণ্ডব চালিয়েছে। শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে ছাত্রলীগ সশস্ত্র হামলা করেছে। কিন্তু যেকোনো ব্যক্তি বা সংগঠন তাদের স্বার্থসংশ্লিষ্ট কোনো বিষয়ে নিজেদের বঞ্চিত মনে করলে তা থেকে প্রতিকার পাওয়ার জন্য সোচ্চার হবেন এটাই স্বাভাবিক।

তিনি বলেন, কোটা প্রথার সাথে দেশের প্রায় ৪ কোটি শিক্ষিত যুব সমাজের জীবন জীবিকার প্রশ্নটি জড়িত। এ ব্যাপারে বিএনপির স্থায়ী কমিটি উৎকণ্ঠিত। ইতিপূর্বে বিএনপি ‘ভিশন ২০৩০’ এ আমরা কোটার বিষয়টি স্পষ্ট উল্লেখ করেছি। দেশকে সত্যিকার ভাবে গড়ে তুলতে হলে মেধার কোনো বিকল্প নেই। মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, নারী ও প্রান্তিক জাতি গোষ্ঠীর কোটা ছাড়া বাকি কোটা পদ্ধতি বাতিল করা হবে। গতকাল শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক দাবি আদায়ের আন্দোলনে বিনা উসকানিতে পুলিশের বর্বরোচিত আক্রমণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

মির্জা ফখরুল বলেন, গণতন্ত্রের নিয়ম-পদ্ধতির প্রতি এই সরকারের কোন শ্রদ্ধাবোধ নেই, যা গত প্রায় এক দশকে বর্তমান সরকার বারবার তাদের কার্যক্রমের মাধ্যমে প্রমাণ করেছে। বর্তমান শাসকদের দেশ পরিচালনায় অন্যায়-অবিচারের শিকার হয়েছে দেশের জনগণ, বিশেষ করে এদেশের মেধাবী ও শিক্ষিত তরুণ সমাজ। এই অবিচারের অবসান ঘটাতে বিএনপি দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস-চেয়ারম্যান বেগম সেলিমা রহমান, শামসুজ্জামান দুদু, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন,সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এ বি এম মোশাররফ হোসেন, শিক্ষা সম্পাদক এবিএম ওবায়দুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

Top