এডিআর সমন্বয়ের সময় বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: বাংলাদেশ ব্যাংক নির্ধারিত ঋণ ও আমানতের অনুপাত (এডিআর) সীমা মানার জন্য ব্যাংকগুলোকে ২০১৯ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত সময় দেয়া হয়েছে। গত জানুয়ারিতে ব্যাংকগুলোর এডিআর সীমা কমানোর পর এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো সীমা সমন্বয়ের সময় বাড়ানো হলো। গতকাল বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব অফ-সাউট সুপারভিশন থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

দেশের ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীর কাছে পাঠানো প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, যেসব ব্যাংকের এডিআর নির্দেশিত মাত্রার চেয়ে বেশি রয়েছে, সেগুলোকে ২০১৯ সালের ৩১ মার্চের মধ্যে নির্ধারিত মাত্রায় নামিয়ে আনতে হবে। এজন্য একটি সুনির্দিষ্ট কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করে ২০১৮ সালের ৩০ এপ্রিলের মধ্যে ডিপার্টমেন্ট অব অফ-সাইট সুপারভিশনে দাখিল করতে হবে।

অবশ্য এর আগে দুবার এডিআরের সীমা সমন্বয়ের সময় নির্ধারণ করেও পরে পিছু হঠে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এডিআর সীমা সমন্বয়ের সময় চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত দেয়া হয়েছিল। এর আগে ব্যাংকগুলোর আগ্রাসী ব্যাংকিং থামাতে গত ৩০ জানুয়ারি বাংলাদেশ ব্যাংক এডিআর সীমা পুনর্নির্ধারণ করে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে। ওই প্রজ্ঞাপনে চলতি বছরের ৩০ জুন পর্যন্ত সময় বেঁধে দেয়া হয়েছিল। যদিও ব্যাংক নির্বাহীদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স (এবিবি) বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের কাছে চিঠি দিয়ে এডিআর না কমানোর অনুরোধ জানিয়েছিল।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ২০১৯ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত সাধারণ ধারার ব্যাংকগুলো ১০০ টাকা আমানত সংগ্রহ করলে সর্বোচ্চ ৮৫ টাকা ঋণ দিতে পারবে। আর ইসলামী ধারার ব্যাংকগুলো ঋণ দিতে পারবে সর্বোচ্চ ৯০ টাকা পর্যন্ত। ২০১৯ সালের এপ্রিল থেকে সাধারণ ধারার ব্যাংকগুলো ১০০ টাকা আমানত সংগ্রহ করলে সর্বোচ্চ ৮৩ টাকা ৫০ পয়সা ঋণ দিতে পারবে। আর ইসলামী ধারার ব্যাংকগুলো ঋণ দিতে পারবে সর্বোচ্চ ৮৯ টাকা পর্যন্ত। দেশের ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীর কাছে পাঠানো এ নির্দেশনায় বলা হয়েছে, যেসব ব্যাংকের এডিআর উল্লিখিত হারের চেয়ে বেশি রয়েছে, সেগুলোকে ২০১৯ সালের ৩১ মার্চের মধ্যে ক্রমান্বয়ে নির্ধারিত মাত্রায় আবশ্যিকভাবে নামিয়ে আনতে হবে।

বর্তমানে ব্যাংক খাতে সাধারণ ব্যাংকগুলোর এডিআর ৮৫ শতাংশ ও ইসলামী ধারার ব্যাংকের ক্ষেত্রে ৯০ শতাংশ নির্ধারিত আছে। কিন্তু সম্প্রতি বেশির ভাগ বেসরকারি ব্যাংকেরই এডিআর নির্ধারিত সীমা ছাড়িয়ে গেছে।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/আ

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top