চলছে অ্যাডভেন্ট ফার্মার চমক

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: লেনদেন শুরুর প্রথম দিনে পুঁজিবাজারে সদ্য তালিকাভুক্ত হওয়া ওষূধ ও রসায়ন খাতের কোম্পানি অ্যাডভেন্ট ফার্মার শেয়ার দর ৪১০ শতাংশ বেড়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় দেশের উভয় শেয়ারবাজারে আনুষ্ঠিানিকভাবে শুরু হয় এ কোম্পানির লেনদেন। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বিশ্লেষণে দেখা গেছে, লেনদেনের প্রথম ঘন্টায় ঢাকা স্টক একচেঞ্জে (ডিএসই) অ্যাডভেন্ট ফার্মার শেয়ার দর ৫০ টাকায় ওপেন হলেও সর্বচ্চো লেনদেনটি হয় ৫৫ টাকায়। আলোচিত সময়ে কোম্পানির শেয়ার দর ৪০.৫০ টাকা থেকে ৫৫ টাকা পর্যন্ত ওঠানামা করে। এ সময় কোম্পানির ৪৭ লাখ ১৯ হাজার ৫৫৯টি শেয়ার মোট ৯ হাজার ৬৬৭ বার হাত বদল হয়।

এদিকে চট্টগ্রাম স্টক একচেঞ্জে (সিএসই) অ্যাডভেন্ট ফার্মার ১০ লাখ ৭৬ হাজার ৪৪৬টি শেয়ার মোট ২ হাজার ৯২৪ বার হাত বদল হয়। এ সময় কোম্পানির শেয়ার দর ৪৫ টাকা থেকে ৫৩ টাকায় পর্যন্ত ওঠানামা করে।

আজ ‘এন’ ক্যাটাগরির আওতায় লেনদেন শুরু করা অ্যাডেভেন্ট ফার্মার ট্রেডিং কোড হবে “ADVENT”। ডিএসইতে কোম্পানিটির কোম্পানি কোড হবে ১৮৪৯২। আর সিএসইতে কোম্পানি কোড হল ১৩০৩২।

এর আগে গত ৮ এপ্রিল কোম্পানিটির লটারিতে বরাদ্দ পাওয়া শেয়ার বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাবে জমা হয়েছে।

কোম্পানির লটারির ড্র অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয় গত ১৩ মার্চ । ১১ ফেব্রুয়ারি থেকে ১৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত কোম্পানিটির আইপিও আবেদন চলে।

অ্যাডভেন্ট ফার্মাকে গত ২ জানুয়ারি মঙ্গলবার বিএসইসির ৬২২তম কমিশন সভায় আইপিও অনুমোদন দেয় বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। কোম্পানিটি যন্ত্রপাতি ক্রয়, ভবন নির্মাণ এবং আইপিওর খরচ বাবদ এ টাকা ব্যয় করবে।

জানা যায়, অ্যাডভেন্ট ফার্মা লিমিটেড আইপিওর মাধ্যমে বাজার থেকে ২০ কোটি টাকা উত্তোলন করে। কোম্পানিটিকে ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ২ কোটি শেয়ার ইস্যু করার অনুমোদন দিয়েছে কমিশন।

৩০ জুন ২০১৭ সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ১২.৪৫ টাকা। এছাড়া, বিগত চার বছরের আর্থিক প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) গড় হারে হয়েছে ০.৯১ টাকা।

এদিকে অ্যাডভেন্ট ফার্মার ২০১৭-২০১৮ হিসাব বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে অক্টোবর ২০১৭ থেকে ডিসেম্বর ২০১৭ পর্যন্ত কোম্পানিটির আইপিওর আগে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৩১ টাকা । আইপিওর পরে ইপিএস হয়েছে ০.২২ টাকা।

অর্ধবার্ষিকে (জুলাই-ডিসেম্বর’১৭) কোম্পানিটির আইপিওর আগে ইপিএস হয়েছে ০.৬৫ টাকা। আইপিওর পরে ইপিএস হয়েছে ০.৪৬ টাকা।

এই সময় ঔষধ বিক্রি বাবদ মোট আয় হয়েছে ৩ কোটি ১৬ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

৩১ ডিসেম্ববর ২০১৭ সাল পর্যন্ত কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৩.১১ টাকা।

উল্লেখ, কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে ইম্পেরিয়াল ক্যাপিটাল লিমিটেড, আলফা ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড এবং সিএপিএম এ্যাডভাইজরি লিমিটেড।

শেয়ারবাজারনিউজ/আ

আপনার মন্তব্য

Top