সম্পাদকীয় এর সকল সংবাদ

দয়া করে স্পর্শকাতর বাজারকে কলঙ্কিত করবেন না

দয়া করে স্পর্শকাতর বাজারকে কলঙ্কিত করবেন না

শুধু বাংলাদেশেই নয় বিশ্বব্যাপী ‘পুঁজিবাজার’ একটি স্পর্শকাতর জায়গা। সামান্যতম নেতিবাচক খবরে এখানে বাজারের জন্য যেমন বয়ে অনতে পারে বড় ধরনের পতন তেমনি ভাল খবরের জন্যও ঘটতে পারে অনেক ঘটনা। আমরা পতন কিংবা বড় উত্থান কোনটির পক্ষেই নই। বরং সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলো বাজারকে তার আপন গতিতে চলতে দিবে এটাই চাই আমরা। বিশেষ করে বাজারের সাথে যারা সংশ্লিষ্ট

বিএসইসির ব্যাখ্যা অনুসরণীয়

অবশেষে আইপিও অনুমোদনের অস্বচ্ছতা নিয়ে মুখ খুলেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন(বিএসইসি)। বিষয়টি নিয়ে সারা দেশের বিনিয়োগকারীসহ মিডিয়াগুলো এতো ব্যপক ভিত্তিক সমালোচনা শুরু করেছিল যে, অনেকটা বাধ্য হয়েইে প্রতিষ্ঠানটিকে তাদের আত্মপক্ষ সমর্থন করে একটি বিবৃতি দিতে হয়েছে। যথার্থ আকারে হোক কিংবা গোজামিলে পরিপূর্ণ থাকুক সেটি আমাদের দেখার বিষয় নয় আমরা অন্তত তাদের এই

থেমে নেই পুঁজিবাজার

টানা অবরোধ এবং হরতালের মধ্যেও পুঁজিবাজার এগিয়েছে সামনের দিকে। বক্তব্যটি আমাদের মনগড়া নয়। শেয়ারবাজার নিউজ ডটকম  তথ্য প্রমাণসহ অবরোধ শুরুর আগের আট কার্যবিস এবং অবরোধ শুরুর পরের আট কার্য দিবসের তুলনামূলক চিত্র নিয়ে গত ১৭ জানুয়ারি ২০১৫ ইং তারিখ একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। ওই রিপোর্টের তথ্য উপাত্ত বলছে, অবরোধে সব ব্যবসা আটকে রাখতে পারলেও শেয়ার

রাঙ্গামাটিদের রুখে দাঁড়ানোর এখনই সময়

শেয়ার বাজারের জন্য একটি দু:সংবাদ প্রকাশ করেছে জাতীয় অনলাইন পোর্টাল শেয়ারবাজার নিউজ ডটকম। ২০১৫ সালের ১৪ জানুয়ারী প্রকাশিত ওই সংবাদে তালিকাভূক্ত কোম্পানীগুলোর অনিয়ম অব্যাবস্থাপনা ও স্বেচ্ছাচারিতার একটি বাস্তব চিত্র সামান্য ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করেছে পত্রিকাটি। সামান্য বলার কারণ হলো অনেক খোজাখুজির পরও কোম্পানির কোনো পর্যায়ের কারো সাথেই যোগাযোগ প্রতিষ্ঠা করতে সমর্থ হয়নি। সংবাদ পত্রের ইথিকস

শুরুর দিনের প্রত্যাশা

শুধুমাত্র পুঁজিবাজার ভিত্তিক একটি নিউজ পোর্টালের অভাববোধ হচ্ছিল দীর্ঘদিন থেকেই। কারন অর্থনীতির এই বিশাল সেক্টরটিতে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতাভিত্তিক কোন পোর্টাল এখনো বাজারে নেই। যা দুএকটি আছে তার ওপর বিনিয়োগকারীদের ভরসা কোন দিনই ছিলনা। চলমান পোর্টালগুলোর বানিজ্যিক চাহিদার কছে বিনিয়োগকারীরা বার বার বিশ্বাস হারিয়েছে এবং হোচট খেয়েছে। মৌলভিত্তিহীন কোম্পানিগুলোর কাছে নিজেদের বিক্রি করে অসত্য রিপোর্ট প্রকাশের

Top