Tag Archives: জিএসপি ফাইন্যান্স

ইস্যু মূল্যের নিচে কোম্পানির সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তি

ইস্যু মূল্যের নিচে কোম্পানির সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তি

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: ২০১১ সাল থেকে ২০১৯ সালের এপ্রিল পর্যন্ত ১১২টি কোম্পানি এবং মিউচুয়াল ফান্ড বাজারে তালিকাভুক্ত হয়েছে। সার্বিক বাজার পরিস্থিতি মন্দা থাকায় ফেসভ্যালুর নিচে নেমে এসেছে অনেক কোম্পানির শেয়ার দর। তবে সেদিকে দৃষ্টি না গেলেও যেসব কোম্পানি প্রিমিয়াম নিয়ে তালিকাভুক্ত হয়েছিল বর্তমানে সেগুলোর শেয়ার দর ইস্যু মূল্যের নিচে নেমে এসেছে বলে খবর প্রচারিত হচ্ছে। এর মধ্যে

জিএসপি ফাইন্যান্সের তৃতীয় প্রান্তিক প্রকাশ

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর’১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত জিএসপি ফাইন্যান্স বাংলাদেশ লিমিটেড। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। জানা যায়, তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫১ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় ছিল ০.৫৭ টাকা। এদিকে, কোম্পানিটির ৯ মাসে অর্থাৎ (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর‘১৮) শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয়

জিএসপি ফাইন্যান্সের অর্ধবার্ষিক প্রতিবেদন প্রকাশ

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: ২০১৮ বছরের অর্ধবার্ষিকের (জানুয়ারি-জুন’১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত জিএসপি ফাইন্যান্স বাংলাদেশ লি:। আজ অনুষ্ঠিত কোম্পানিটির পর্ষদ সভায় অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুমোদন হয়। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। জানা যায়, অর্ধবার্ষিকে কোম্পানির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৮৯ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে সমন্বিত ইপিএস ছিল ১.০৭ টাকা।

বিদেশি সেল প্রেসারের কবলে ১৭ কোম্পানি

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: তালিকাভুক্ত বেশকিছু কোম্পানির ভালো পরিমাণ শেয়ার ধারণ করে আছেন বিদেশি বিনিয়োগকারীরা। প্রতিমাসেই শেয়ার কেনা-বেচার মাধ্যমে বিদেশিরা এ মার্কেটে সম্পৃক্ত রয়েছেন। গেল জুন মাসে গুটিকয়েক কোম্পানিতে বিদেশিদের শেয়ার ধারণের পরিমাণ বাড়লেও ১৭ কোম্পানিতে ছিলো অত্যধিক সেল প্রেসার। আর এই সেল প্রেসারের কারণে এসব কোম্পানিতে বিদেশিদের শেয়ার ধারণের পরিমাণও কমে গেছে। কোম্পানিগুলো হলো: এবি ব্যাংক,

জিএসপি ফাইন্যান্সের প্রথম প্রান্তিক প্রকাশ

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: প্রথম প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভূক্ত জিএসপি ফাইন্যান্স কোম্পানি (বাংলাদেশ) লিমিটেড। আজ অনুষ্ঠিত কোম্পানিটির পর্ষদ সভায় অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুমোদন হয়। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৪৪ টাকা (রিস্টেটেড)। এর আগের বছর একই সময় সমন্বিত ইপিএস ছিল

বড় স্টক ডিভিডেন্ড দিল জিএসপি ফাইন্যান্স

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ সমাপ্ত অর্থবছরের জন্য বড় স্টক ডিভিডেন্ড ডিভিডেন্ড ঘোষণা করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত জিএসপি ফাইন্যান্স। কোম্পানিটি ২৩.৫০ শতাংশ স্টক ডিভিডেন্ড দেওয়ার সুপারিশ করেছে। আজ অনুষ্ঠিত কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। জানা যায়, সমাপ্ত অর্থবছরে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.০৮ টাকা

৬ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রকিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৬ কোম্পানি। এর মধ্যে এক কোম্পানি বাদে ৫ কোম্পানির শেয়ার  প্রতি আয় বেড়েছে। নিম্ন কোম্পানিগুলোর আর্ধিক প্রতিবদেনগুলো তুলে ধরা হলো- ন্যাশনাল ব্যাংক: অর্ধবার্ষিকে ন্যাশনাল ব্যাংকের শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫৩ টাকা। যা আগের বছর একই সময় ছিল ১.০৫ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস কমেছে ০.৫২ টাকা বা ৪৯.৫২

অর্ধবার্ষিকে জিএসপি ফাইন্যান্সের ইপিএস বেড়েছে ৪১.৯৩ শতাংশ

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: অর্ধবার্ষিকের (জানুয়ারি-জুন’১৭) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত আর্থিক খাতের জিএসপি ফাইন্যান্স কোম্পানি (বাংলাদেশ) লিমিটেড। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী বেড়েছে কোম্পানি সূত্রে  এ তথ্য জানা গেছে। সূত্র মতে, অর্ধবার্ষিকে জিএসপি ফাইন্যান্সের শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৩২ টাকা এবং এককভাবে হয়েছে ১.২৩ টাকা। যা আগের বছর একই সময় সমন্বিত আয় ছিল ০.৯৩ টাকা এবং এককভাবে হয়েছে ০.৯১ টাকা।  সে

হঠাৎ চাঙ্গা আর্থিক খাত

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) আর্থিক খাতে থাকা সকল কোম্পানির শেয়ার দরে চাঙ্গা ভাব লক্ষ করা গেছে। আজ সোমবার এ খাতের দুই কোম্পানি বাদে সকল কোম্পানির শেয়ার দর সবুজ সংকেত বা গ্রীণ সিগন্যাল দেখাচ্ছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। ডিএসইর তথ্যানুযায়ী, শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়া আর্থিক খাতের ২৩ কোম্পানির মধ্যে ২১ কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে এবং

২৯ কোম্পানিতে বেড়েছে বিদেশি বিনিয়োগ

শেয়ারবাজার রিপোর্ট:  শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ২৯৬ কোম্পানির মধ্যে ১২২ কোম্পানিতে রয়েছে বিদেশি বিনিয়োগ। এর মধ্যে গত এপ্রিল মাসে ২৯ কোম্পানিতে  বিদেশিদের শেয়ার ধারণ বেড়েছে। কোম্পানিগুলো হলো- আমরা টেকনোলজি, একটিভ ফাইন, একমি ল্যাব, বিট্রিশ আমেরিকান টোবাকো বাংলাদেশ, বাংলাদেশ বিল্ডিং  সিস্টেম, সিটি ব্যাংক, সিটি জেনারেল ইন্স্যুরেন্স, ডেল্টা ব্রাক হাউজিং ফাইন্যান্স, ঢাকা ইন্স্যুরেন্স, এনভয় টেক্সটাইল, এক্সিম ব্যাংক, ফার্স্ট সিকিউরিটজ ইসলামী

Top