মানসিক চাপ কমাতে যা করবেন

শেয়ারবাজার ডেস্ক: মানসিক চাপ! এটি যেন আমাদের নিত্য সঙ্গী! ব্যক্তিগত জীবন, পারিবারিক নানা কাজ, অফিসের ডেডলাইন- সব মিলিয়েই সারা দিনের নানা সমস্যা আমাদের মনের অনেকটাই জুড়ে থাকে। এ কারণে আমরা মানসিক চাপের শিকার হয়ে পড়ি। তবে সহজ কিছু উপায় জানা থাকলে এই চাপ নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব।

চলুন জেনে যাক, মানসিক চাপ কমানোর সহজ কিছু উপায় সম্পর্কে-

মেডিটেশন: প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে বা ঘুমাতে যাওয়ার আগে মেডিটেশন করুন। মেডিটেশন মনঃসংযোগ বাড়ায়, সহজেই কমে কাজের চাপ। চিকিৎসকদের মতে, রোজ মেডিটেশনে অভ্যস্ত হলে মন শান্ত থাকে। সহজে উত্তেজিত হওয়ার প্রবণতাও কমে।

হাঁটুন: কাজে মন না বসলে কিংবা চাপ পড়লে অনেকেই ধূমপানের আশ্রয় নেন, যা শরীরের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। তাই সে সব ছেড়ে বরং হাঁটায় মন দিন। কোনো এক সময় অফিস থেকে বেরিয়ে চারপাশ হেঁটে আসুন। ১৫ মিনিট হাঁটলেও শরীরের পেশিরা সক্রিয় হয়। দীর্ঘক্ষণ এক জায়গায় বসে কাজ করার ক্লান্তি কমে।

বডি মাসাজ: শরীরের নানা বেদনা কমাতে যেমন এটি উপকারী, ঠিক তেমনই মানসিক চাপ কমিয়ে মনকে প্রফুল্ল রাখতেও এর জুড়ি নেই। পেশী ও স্নায়ুগুলিকে সতেজ রাখে ও রক্ত চলাচলে সুবিধা করে দেয় এই ধরনের মাসাজ। তাই সপ্তাহে একবার বডি মাসাজ করালে শরীর ও মন দুটোই ফুরফুরে থাকবে।

গান: মানসিক চাপে জেরবার হওয়া থেকে বাঁচতে শরণ নিন হালকা কোনো গানের। আপনার ভাল লাগে এমন কোনো হালকা গান বা বাদ্যযন্ত্রে মন দিন। অফিসে থাকলেও হাতে ৫ মিনিট সময় নিয়ে কাজ থেকে উঠে ইয়ারফোনে শুনে আসুন গান। আবার কাজে বসুন। গান মস্তিষ্কের কোষকে আরাম দিয়ে কাজের গতি, নিপুণতা সবই বাড়ায়।

চিউয়িং গাম: তামাক ছাড়তে অনেকেই চিউয়িং গামে আস্থা রাখেন, মানসিক চাপ কমাতেও এর উপর ভরসা করতে পারেন। চিউয়িং গামের মধ্যে থাকা নানা রাসায়নিক উপাদান স্নায়ুগুলিকে সাময়িক উদ্দীপ্ত করে। ফলে ক্লান্তি সরে, কাজে নতুন শক্তি ফিরে পাওয়া যায়। ক্লান্তি কমায় মানসিক চাপ থেকেও খানিক নিষ্কৃতি মেলে।

আঁকিবুকি: যদি আঁকাআঁকির শখ থাকে, তাহলে সঙ্গে কাগজ রাখুন। কাজের ফাঁকে সামান্য সময় পেলেই আঁকাআঁকি করুন। তাতে মনের চাপ যেমন কমবে, তেমনই পুরনো শখও ঝালিয়ে নিতে পারবেন। মনোবিদদের মতে, কম্পিউটারের যুগে কাগজ-কলমের সান্নিধ্য এমনিতেই মন-মেজাজ হালকা রাখে। তাই মানসিক চাপ কমাতে মন বসান এতে।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top