লাদেন পুত্র হামজার নাগরিকত্ব বাতিল করল সৌদি

শেয়ারবাজর ডেস্ক: ওসামা বিন লাদেনের পুত্র হামজা বিন লাদেনের নাগরিকত্ব বাতিল করে দিল সৌদি আরব। আমেরিকার পক্ষ থেকে হামজার খোঁজ দিলে ১ মিলিয়ন ডলার পুরস্কার ঘোষণা দেয়। ঠিক একদিন পরই সৌদি লাদেন পুত্রের নাগরীকত্ব বাতিল করে।

শুক্রবার (১ মার্চ) বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে সৌদি কর্তৃক লাদেন পুত্রের নাগরীকত্ব বাতিল করার বিষয়টি জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে হানার আগে পর্যন্ত ৩০ বছর বয়সী হামজা আফগানিস্তানে তাঁর বাবার কাছেই থাকত বলে জানা গিয়েছে। বাবার সঙ্গেই বেশিরভাগ সময় কাটাত সে। জানিয়েছে ব্রুকিংস ইনস্টিটিউশন। এর ফলে তাঁর গায়ে আল কায়দার একজন শক্তিশালী নেতার ছাপ পড়েই গিয়েছিল।

বাবার মৃত্যুর বদলা নিতে হামজা পশ্চিমা দেশগুলোকে সন্ত্রাসবাদের জন্য আহ্বান জানিয়েছিলেন এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে তার বাবার হত্যার জন্য প্রতিশোধ নেয়ার হুমকি দিয়েছিলেন।

এদিকে আমেরিকা ২০১৭ সালে প্রথম লাদেন পুত্রকে বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসী হিসেবে আখ্যায়িত করেন এবং চলতি বছরে তাকে খুঁজতে পুরস্কার ঘোষণা করেন। ওই ঘোষণার পরেই সৌদি আরবের নাগরীকত্ব বাতিল যেন একরকম সম্পূর্ণতা পেল বলে মনে করছে বিশ্ব শাসকরা।

ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, আল কায়দার নতুন প্রধান আয়মান আল-জাওয়াহিরি ২০১৫ সালের একটি অডিও বার্তার মাধ্যমে অল্পবয়সী হামজাকে পরিচয় করিয়ে দেন বাকি দুনিয়ার সঙ্গে। যে আল কায়দার প্রৌঢ় নেতাদের পক্ষে অল্পবয়সী জঙ্গিদের অনিপ্রাণিত করা মুশকিল হয়ে পড়ছে ক্রমশ, তাদের পক্ষে হামজার মত তরুণকে দলে পেয়ে কাজে লাগিয়ে নতুনদের আরও বেশি করে আল কায়দায় যুক্ত করার পরিকল্পনা সফল হতে পারে বলে মনে করে ওয়াকিবহালমহল।

প্রসঙ্গত, গত নভেম্বরেই সৌদির রাজপরিবার থেকে হামজার নাগরিকত্ব বাতিল করে দেওয়ার প্রস্তাব পাশ হয়ে গিয়েছিল।

শেয়ারবজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

Top