আজ: বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১ইং, ২০শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১৭ জানুয়ারী ২০১৫, শনিবার |



kidarkar

ইউনাইটেড পাওয়ারের আইপিও: পিই অনুযায়ী লাভবান হবেন বিনিয়োগকারীরা

UPGDশেয়ারবাজার রিপোর্ট: রোববার থেকে শুরু হচ্ছে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) আবেদন। স্থানীয় বিনিয়োগকারীরা ২২ জানুয়ারি পর্যন্ত এ কোম্পানির আইপিওতে আবেদন করতে পারবেন। তবে প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের জন্য এ সুযোগ থাকছে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত। ইতিমধ্যেই এ কোম্পানির বিডার তথা প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা তাদের আবেদনের অর্থ জমা করেছেন বলে জানা গেছে।
এদিকে মার্কেট পিই অনুযায়ী, এ কোম্পানির শেয়ার কিনে বিনিয়োগকারীরা লাভবান হবেন। এছাড়া উচ্চ নিরাপদ সমৃদ্ধ ক্রেডিট রেটিং, ভালো মুনাফা ও ইপিএস এবং প্রত্যাশিত ডিভিডেন্ড প্রাপ্তির মাধ্যমে বিনিয়োগকারীরা এ কোম্পানির প্রতি দীর্ঘমেয়াদে আস্থাশীল হবেন বলে আশা প্রকাশ করছে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ।
জানা যায়, বর্তমানে মার্কেট পিই রেশিও ১৭.১১। অন্যদিকে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৩ সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫.৯৮ টাকা। অর্থাৎ মার্কেট পিই রেশিও অনুযায়ী, এ কোম্পানির প্রতি শেয়ারের বাজার দর দাঁড়ায় ১০২ টাকা।
এ ব্যাপারে চিফ ফিন্যান্সিয়াল অফিসার (সিএফও) ইবাদত হোসেন শেয়ারবাজার নিউজ ডটকমকে জানান, ২০১৩ সালের তুলনায় ২০১৪ সালে আমাদের আয় অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। পাশাপাশি মুনাফা ও ইপিএসে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে। ইউনাইটেড পাওয়ার থেকে বিনিয়োগকারীরা সবসময় প্রত্যাশিত ডিভিডেন্ড পাবেন। ২০১৩ ও ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরের বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আমাদের একসঙ্গে করতে হবে। এক্ষেত্রে বর্তমানে সময়ে মার্কেটে আসায় বিনিয়োগকারীরা দু’বছরের ডিভিডেন্ড এক সঙ্গে পাবেন বলে জানান তিনি।
তিনি আরো বলেন, এতে এ কোম্পানিতে বিনিয়োগে বিনিয়োগকারীরা ব্যাপক লাভবান হবেন। তাছাড়া মার্কেট পিই ও ২০১৩ সালের ইপিএস অনুযায়ী ইউনাইটেড পাওয়ারের শেয়ার দর ১০০ টাকা অতিক্রম করার কথা। আসন্ন আর্থিক প্রতিবেদনে মুনাফা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ইপিএসের পরিমাণও বাড়বে। এতে বাজার দর অনেক বৃদ্ধি পাবে। ক্রেডিট রেটিং অনুযায়ী কোম্পানির আর্থিক ভীত অত্যন্ত মজবুত। তাই বিনিয়োগকারীরা এ কোম্পানির প্রতি দৃঢ় আস্থা রাখতে পারেন বলে জানান ইবাদত হোসেন।
জানা যায়, এ কোম্পানির বর্তমান ক্রেডিট রেটিং দীর্ঘমেয়াদে ‘ডাবল এ’ এবং স্বল্পমেয়াদে ‘এসটি-২’। ক্রেডিট রেটিং দীর্ঘমেয়াদে ‘ডাবল এ’ দিয়ে উচ্চ নিরাপদ সমৃদ্ধ কোম্পানিকে বুঝায়। অন্যদিকে স্বল্পমেয়াদে ‘এসটি-২’ রেটিং দিয়ে হাই গ্রেড কোম্পানিকে বুঝায়। এদিকে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৩ সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী,এ কোম্পানির রেভিনিউয়ের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩৩৯ কোটি ৬১ লাখ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৩২৭ কোটি ৩৪ লাখ ৯০ হাজার টাকা। অর্থাৎ এ কোম্পানির রেভিনিউ বা আয়ের পরিমাণ বেড়েছে ১২ কোটি ২৬ লাখ ১০ হাজার টাকা।
এদিকে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৩ সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী,ইউনাইটেড পাওয়ারের কর পরিশোধের পর মুনাফার পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১৭৭ কোটি ৪৪ লাখ ৩০ হাজার টাকা ও শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ৫.৯৮ টাকা।
এদিকে সদ্য সমাপ্ত অর্থবছরে কোম্পানির আয় বৃদ্ধির পাশাপাশি মুনাফা ও ইপিএস অনেক বেড়ে যাওয়ার আশা প্রকাশ করছে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ।
উল্লেখ্য, ইউনাইটেড পাওয়ার ৩ কোটি ৩০ লাখ শেয়ার ইস্যু করে পুঁজিবাজার থেকে ২৩৭ কোটি ৬০ লাখ টাকা সংগ্রহ করবে। এক্ষেত্রে ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সঙ্গে ৬২ টাকা প্রিমিয়ামসহ প্রতিটি শেয়ারের ইস্যুমূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৭২ টাকা। বিনিয়োগকারীদের নূন্যতম ১০০টি শেয়ারের জন্য আইপিও আবেদন করতে হবে। এক্ষেত্রে প্রতিটি আবেদনের জন্য বিনিয়োগকারীদের ৭ হাজার ২০০ টাকা ব্যয় করতে হবে।

শেয়ারবাজার/সা/অ

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.