আজ: শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২ইং, ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১১ জুন ২০১৫, বৃহস্পতিবার |


kidarkar

বাজার পরিস্থিতি উন্নয়নে বিএসইসি-ডিএসই বৈঠক


BSEC &DSEC_SharebazarNewsশেয়ারবাজার রিপোর্ট: বাজার পরিস্থিতি উন্নয়নে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সঙ্গে বৈঠক করেছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)। আজ বৃহস্পতিবার ১১ জুন অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে আইপিও প্রক্রিয়া, অটোমেটেড ট্রেডিং সিস্টেম, মার্জিন ইস্যু, পুঁজিবাজারে নতুন প্রোডাক্ট ইটিএফ চালু, ট্রেজারী বন্ড, ডিএসই’র নিকুঞ্জ ভবন, সিডিবিএল এর বিভিন্ন চার্জ ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়। এছাড়া চলতি ২০১৫ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে পুঁজিবাজারে নতুন প্রোডাক্ট এক্সচেঞ্জ ট্রেডেড ফান্ড (ইটিএফ) এর বিধিমালা তৈরি করে আগামী বছরের মধ্যে ইটিএফ চালু করা হবে বলে জানা গেছে।

জানা যায়, ডিএসই’র চেয়ারম্যান বিচারপতি ছিদ্দিকুর রহমান মিয়ার নেতৃত্বে ৯ (নয়) সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল আজ বাজেটোত্তর আলোচনার জন্য বিএসইসি’র চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এম খায়রুল হোসেনের সঙ্গে বৈঠকে করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, বিএসইসি’র কমিশনার অধ্যাপক মোঃ হেলাল উদ্দিন নিজামী,  আমজাদ হোসেন, মোঃ এ সালাম সিকদার এবং নির্বাহী পরিচালকবৃন্দ।

বৈঠকে ডিএসই’র চেয়ারম্যান বিচারপতি ছিদ্দিকুর রহমান মিয়া বলেন, ২০১৫-১৬ অর্থবছরের বাজেটে পুঁজিবাজারের যেসব প্রস্তাবনা রাখা হয়েছে তা বাজারের জন্য তথা বিনিয়োগকারীদের জন্য সত্যিই স্বস্তিদায়ক, আর এই সবই সম্ভব হয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায়। এজন্য ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের পরিচালনা পর্ষদের পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

বৈঠকে ডিএসই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক অধ্যাপক ড. স্বপন কুমার বালা বাজেটে পুঁজিবাজারবান্ধব যে সমস্ত প্রস্তাবনা রাখা হয়েছে তার বিস্তারিত তুলে ধরেন এবং ডিএসই’র কর অবকাশ সুবিধাসহ যে সমস্ত বিষয়গুলো বাজেটে আসেনি সে বিষয়গুলো কমিশনকে অবহিত করেন।

এছাড়াও, বৈঠকে বাজার পরিস্থিতি উন্নয়নের লক্ষ্যে আইপিও প্রক্রিয়া, অটোমেটেড ট্রেডিং সিস্টেম, মার্জিন ইস্যু, পুঁজিবাজারে নতুন প্রোডাক্ট ইটিএফ চালু, ট্রেজারী বন্ড, ডিএসই’র নিকুঞ্জ ভবন, সিডিবিএল এর বিভিন্ন চার্জ ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়।

আলোচনা শেষে বিএসইসি’র চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এম খায়রুল হোসেন বলেন, বাজেটে আগের বছরের সকল সুবিধা বহাল রেখে এবারের বাজেটে যেসমস্ত সুবিধাদি রাখা হয়েছে তার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রীকে ধন্যবাদ। পুঁজিবাজারের স্বার্থে বিএসইসি সকল ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করবে। এরমধ্যে সিডিবিএল এর চার্জ যৌক্তিকীকরণের উদ্যোগ নিয়েছে। যাতে সিডিবিএল এর চার্জ বাজারে কোন সমস্যার সৃষ্টি না করে।

তিনি আরও বলেন, ২০১৫ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে পুঁজিবাজারে নতুন প্রোডাক্ট এক্সচেঞ্জ ট্রেডেড ফান্ড (ইটিএফ) এর বিধিমালা তৈরি করে আগামী বছরের মধ্যে ইটিএফ চালু হবে। এছাড়াও তিনি ২০১৫-১৬ অর্থবছরের বাজেটে যে সমস্ত বিষয়াদি আসেনি অথচ পুঁজিবাজারের জন্য প্রয়োজন এ সমস্ত বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনার মাধ্যমে পুঁজিবাজারের স্বার্থে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে আশ্বাস দেন।

উল্লেখ্য, ডিএসই’র প্রতিনিধিদলে ছিলেন পরিচালক রুহুল অমিন, ওয়ালিউল ইসলাম, অধ্যাপক ড. এম কায়কোবাদ,  মোঃ শাকিল রিজভী, খাজা গোলাম রসূল, মোহাম্মদ শাহজাহান এবং শরীফ আনোয়ার হোসেন।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/সা


আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.