আজ: শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২ইং, ১৮ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১লা জিলহজ, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২২ ডিসেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার |



kidarkar

আপনারা তো গণতন্ত্র ও মানুষের অধিকার খেয়ে ফেলেছেন : ফখরুল

শেয়ারবাজার ডেস্ক: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘আমার খুব দুঃখ হয়, যখন দেখি যে আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ বলছেন যে, বিএনপির মধ্যে গণতন্ত্র নেই; ভূতের মুখে রাম নাম! আপনারা (আওয়ামী লীগ) তো দেশের গণতন্ত্রই খেয়ে ফেলেছেন, মানুষের অধিকারগুলো খেয়ে ফেলেছেন। আর অন্যের গণতন্ত্র দেখে বেড়াচ্ছেন।’ গতকাল সোমবার গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

ফখরুল বলেন, বিএনপির মধ্যে গণতন্ত্র আছে বলেই তো বিএনপি এখন পর্যন্ত এত অটুট আছে, একেবারে সুদৃঢ়ভাবে ঐক্যবদ্ধ আছে। দলের দুই নেতাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠানো নিয়ে তিনি বলেন, বিএনপি একটা বৃহৎ দল; এই ধরনের উদারপন্থী, গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দলে ছোটখাটো দুই-একটা ঘটনা কোনো ঘটনাই নয়। এটাকে এত বড় করে যারা দেখছেন, তারা আমার মনে হয় ঠিকভাবে দেখছেন না। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, উনার (হাফিজ উদ্দিন আহমেদ) বিষয়ে আমরা কি পালটা কিছু বলেছি? উনার বক্তব্যে উনি যা বলেছেন, তা আমি দেখেছি। এখন পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ভারতে ২২ জন কংগ্রেসের শীর্ষ নেতা ওপেন চিঠি দিয়েছেন সোনিয়া গান্ধীকে। কই তারা তো কেউ বহিষ্কার হননি। দ্যাট ইজ দ্য প্রাকটিস অব ডেমোক্রেটিক পার্টি।

সাংবাদিকদের পালটা প্রশ্ন করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, গণতন্ত্র তো ধ্বংস করেই ফেলেছে আওয়ামী লীগ সরকার। সেই বিষয়ে কিন্তু একটা কথাও গণমাধ্যমের কোথাও বলা হয় না। তারা (আওয়ামী লীগ) যখন প্রেস কনফারেন্স করেন, তাদের কি একবারও জিজ্ঞাসা করেন, আপনি কেন এটা করলেন? দেশে এমন একটা ত্রাসের বা ভয়ের পরিবেশ তৈরি করেছে, আপনারা যারা স্বাধীন সাংবাদিকতা করতে চান, তারা করতে পারছেন না।

ফখরুল বলেন, তারা (আওয়ামী লীগ) মেজর (অব.) হাফিজের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করেছে, তারা তার বিরুদ্ধে নাশকতার মামলা করেছে, তারা তার বিরুদ্ধে বাস-ট্রাক পুড়িয়ে দেওয়ার মামলা করেছে। একটা নয়, ১০টা মামলা। সেক্ষেত্রে আওয়ামী লীগের মুখে মুক্তিযোদ্ধা নিয়ে কথা বলা শোভা পায় না। তিনি বলেন, কোন্ মুক্তিযোদ্ধাকে তারা সম্মান দিয়েছেন? তারা কি জিয়াউর রহমানকে সম্মান দিয়েছেন? তারা কি তাজউদ্দীন আহমদ সাহেবকে সম্মান দিয়েছেন? তারা দেননি।

নির্বাচন কমিশনের ‘অনিয়ম-দুর্নীতি’ তুলে ধরে তার বিচারে রাষ্ট্রপতির কাছে ৪২ নাগরিকের চিঠি দেওয়াকে সাধুবাদ জানান বিএনপি মহাসচিব ফখরুল। তিনি বলেন, আমরা ৪২ জন বিশিষ্ট নাগরিককে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাতে চাই যে, এত দিন পরে তারা জনগণের যে মূল কথা সেটা নিয়ে এসেছেন, কথা বলেছেন। তাদের যে দায়িত্ব আছে সেটা তারা পালন করেছেন। ৪২ নাগরিকের দেওয়া বিবৃতির খসড়া বিএনপির তৈরি করা—তথ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্যের জবাবে ফখরুল বলেন, যারা বিবৃতি দিয়েছেন, তারা একজনও বিএনপি করেন না।

শেয়ারবাজার নিউজ/মি

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.