আজ: শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ইং, ২রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

৩০ ডিসেম্বর ২০২০, বুধবার |



kidarkar

স্ত্রীকে হত্যার লবন দিয়ে ৩ দিন পর হাসপাতালে নিয়ে গেলে আটক স্বামী

শেয়ারবাজার ডেস্ক: দুই তিন দিন আগেই স্ত্রীকে হত্যা করেছেন স্কুলশিক্ষক স্বামী। লাশ যাতে না পচে সেজন্য লবণ মাখা হয় মরদেহে। এরপর চিকিৎসার নামে হাসপাতালে স্ত্রীর লাশ ফেলে পালিয়ে যেতে চাইলে ধরা পরে যায় সে।

মঙ্গলবার (২৯ ডিসেম্বর) দুপুরে এ ঘটনায় পুলিশ বন্দর গার্লস স্কুলের পিটি শিক্ষক আমিনুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করেছে। স্ত্রী সুলতানা আক্তার শান্তা (২২) সোনারগাঁ উপজেলার বারদী এলাকার মো. কলিমউল্লাহর মেয়ে।

বন্দর থানা পুলিশ জানায়, গ্রেপ্তারকৃত আমিনুল ইসলাম বন্দর রাজবাড়ী এলাকার রফিকুল ইসলাম মিয়ার ছেলে এবং বন্দর গার্লস স্কুলের শিক্ষক। তিনি তার স্ত্রী লাশ নিয়ে এসেছিলেন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।

বন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত চিকিৎসক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, দুপুর দেড়টার দিকে কম্বলে মোড়ানো অবস্থায় এক নারীর লাশ নিয়ে আসেন এক যুবক। জানতে চাইলে ওই যুবক লাশটি তার স্ত্রীর আবার কখনও রাস্তা থেকে কুড়িয়ে পাওয়া লাশ বলে পরিচয় দেয়।

তার অসংলগ্ন কথাবার্তা শুনে এক পর্যায়ে পুলিশে খবর দিলে সে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। পরে হাসপাতালের লোকজন তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

কেন খুন করা হয়েছে তার কারণ এখনো জানা যায়নি।

শেয়ারবাজার নিউজ/মি

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.