আজ: রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১ইং, ১৮ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২১শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১০ মার্চ ২০২১, বুধবার |



kidarkar

ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শন করেছেন ২৬ জন শিক্ষক

শেয়ারবাজার ডেস্ক: বাংলাদেশি ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটনের কারখানা পরিদর্শন করছেন দেশের চারটি প্রকৌশল, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৬ জন বিশিষ্ট শিক্ষক। উদ্দেশ্য, দেশীয় প্রযুক্তিপণ্য উৎপাদন শিল্পের অভাবনীয় অগ্রগতি পর্যবেক্ষণ। বাংলাদেশি রপ্তানিমুখী শিল্প প্রতিষ্ঠানের প্রযুক্তিগত উন্নয়ণ, উৎপাদন প্রক্রিয়া ও পণ্যের উচ্চ গুণগতমান সরেজমিনে দেখবেন তারা।

এ চারটি বিশ্ববিদ্যালয় হলো, ইসলামিক ইউনিভাসির্টি অব টেকনোলজি (আইইউটি), খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট), রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট) এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবিপ্রবি)।

বুধবার (১০ মার্চ) শিক্ষকরা গাজীপুরের চন্দ্রায় ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শনে আসেন। শিক্ষকদের মধ‌্যে রয়েছেন আইইউটির ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর ড. ওমর জা, ফ্যাকাল্টি অব টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ডিন প্রফেসর ড. মো. আশরাফুল হক, ফ্যাকাল্টি অব সাইন্স অ্যান্ড টেকনিক্যাল এডুকেশন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ রাকিবুল ইসলাম, চিফ অব এস্টাবলিসমেন্ট মো. গোলাম সালেক, রেজিস্ট্রারার ড. মউবেসা উমর, প্রসেফর ড. মো. রুহুল আমিন, প্রফেসর ড. এ ইউ পাটোয়ারি, প্রফেসর ড. হোসেইন মো. শাহিন এবং প্রফেসর ড. মো. হামিদুর রহমান।

কুয়েট শিক্ষকদের মধ্যে রয়েছেন প্রফেসর ড. মো. কুতুব উদ্দীন, প্রফেসর ড. খন্দকার আফতাব হোসেইন, প্রফেসর ড. এ. এন. এম মিজানুর রহমান, প্রফেসর মো. গোলাম কাদের, প্রফেসর ড. মো. শহিদুল ইসলাম, প্রফেসর ড. মোহাম্মদ মাসুদ এবং অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর ড. মো. আবদুল্লাহ আল বারি।

ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শনকারী রুয়েট শিক্ষকরা হলেন প্রফেসর ড. মো. মোশাররফ হোসেইন, প্রফেসর ড. মিয়া মো. জগলুল শাহাদাত, প্রফেসর ড. মো. ফারুক হোসেইন, প্রফেসর ড. মো. এমদাদুল হক এবং ড. মোহাম্মদ নুরুর রহমান।

শাবিপ্রবি প্রতিনিধিদলে আছেন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ মুহসিন আজিজ খান, প্রফেসর ড. মো. আবু হায়াত মিঠু, প্রফেসর ড. এ বি এম আবদুল মালেক এবং প্রফেসর ড. আহমেদ সায়েম।

কারখানা কমপ্লেক্সে পৌঁছালে অতিথিদের ফুল দিয়ে স্বাগত জানান ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর হুমায়ূন কবীর, আলমগীর আলম সরকার, এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর ইউসুফ আলী, কর্নেল (অব) এস এম শাহাদাত আলম, মীর মুজাহেদীন ইসলাম, আনিসুর রহমান মল্লিক, তাপস কুমার মজুমদার, তোফায়েল আহমেদ ও ইয়াসির আল ইমরান, ডেপুটি অপারেটিভ ডিরেক্টর মোহসিন আলী মোল্লা, মিডিয়া উপদেষ্টা এনায়েত ফেরদৌসসহ আরও অনেকে।

কারখানা প্রাঙ্গনে পৌঁছে অতিথিরা প্রথমে ওয়ালটনের বিশাল কর্মযজ্ঞের ওপর নির্মিত ভিডিও ডক্যুমেন্টারি উপভোগ করেন। এরপর তারা ওয়ালটনের সুসজ্জিত প্রোডাক্ট ডিসপ্লে সেন্টার ঘুরে দেখবেন। পর্যায়ক্রমে অতিথিরা বিশ্বমানের রেফ্রিজারেটর উৎপাদন প্রক্রিয়া, মেটাল কাস্টিং, কম্প্রেসর, এয়ার কন্ডিশনার, টেলিভিশন, এসএমটি প্রোডাকশন, পিসিবি, কম্পিউটার এবং মোবাইল ফোন উৎপাদন ইত্যাদি কারখানা সরেজমিনে পরিদর্শন করবেন।

৫ উত্তর “ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শন করেছেন ২৬ জন শিক্ষক”

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.