আজ: শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১ইং, ৩১শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৩০শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৯ মার্চ ২০২১, সোমবার |


আগুন লাগা গ্যারেজে পাওয়া গেল ৬ লাখ ২২ হাজার ইয়াবা 

জাতীয় ডেস্ক: কক্সবাজারের মহেশখালীতে আগুন লাগা গ্যারেজের এক গাড়ি থেকে ছয় লাখ ২২ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করেছে পুলিশ। এসময় পুড়ে যাওয়া তিনটি মোটরসাইকেল ও একটি প্রাইভেট কার জব্দ করা হয়েছে।

গতকাল রোববার দিবাগত রাত ২টায় মহেশখালী পৌরসভার সিকদার পাড়ায় অভিযানে এসব ইয়াবা জব্দ করা হয়েছে।

আজ সোমবার সকালে মহেশখালী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হাই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আগুনে পুড়ে যাওয়া গ্যারেজ ও গাড়িগুলোর মালিক মহেশখালী পৌরসভার সিকদার পাড়ার মোহাম্মদ জকরিয়া সিকদার ওরফে মৌলভী জকরিয়ার ছেলে সালাহ উদ্দিন সিকদার (৪০)।

তিনি মহেশখালী পৌর মেয়র ও অনুষ্টিতব্য পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনীত মেয়র প্রার্থী মকছুদ মিয়ার চাচাতো ভাই।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে ওসি আব্দুল হাই জানান, পারিবারিক শত্রুতার জেরে পৌর মেয়র মকছুদ মিয়ার সঙ্গে সালাহ উদ্দিন সিকদারের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এছাড়া আগামী ১১ এপ্রিল অনুষ্ঠিতব্য পৌর নির্বাচনে মকছুদ মিয়ার আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করছেন। এ পরিস্থিতিতে গত রাত ২টায় পৌর মেয়রের কার্যালয়ের পাশে তার সমর্থকদের ওপর কে বা কারা গুলি ছোঁড়ে। এতে ৩ জন গুলিবিদ্ধ হন। গুলিবিদ্ধরা হলেন— নুর হোসেন (৪০), মোহাম্মদ কাউছার (৩০) ও ভূবন দে (৩৫)।

আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে মহেশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। এসময় হাসপাতালের চিকিৎসক তাদেরকে চট্টগ্রাম মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।

আব্দুল হাই আরও জানান, এরই মধ্যে কে বা কারা সালাহ উদ্দিন সিকদারের বাড়িতে গাড়ির গ্যারেজে আগুন লাগিয়ে দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে।

ওসি জানান, গ্যারেজে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৩টি মোটরসাইকেল ও ১ টি প্রাইভেট কার পুড়ে যায়। আগুন নিয়ন্ত্রণে আসার পর পুড়ে যাওয়া প্রাইভেট কারের পিছনের বেক-ঢালার ভিতর থেকে কিছু প্যাকেট জব্দ করা হয়। প্যাকেটগুলো খুলে আংশিক পুড়ে যাওয়া অবস্থায় ২ লাখ ২ হাজার এবং অক্ষত অবস্থায় ৪ লাখ ২০ হাজার ইয়াবা পাওয়া যায়। এসময় গ্যারেজ ও গাড়ির মালিক পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

গোলাগুলির ও আগুন লাগিয়ে দেবার ঘটনায় কে বা কারা জড়িত পুলিশ এখনো নিশ্চিত নয়। ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে বলে জানান আব্দুল হাই।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.