আজ: মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১ইং, ১২ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১১ এপ্রিল ২০২১, রবিবার |



kidarkar

জমজমাট দ্বৈরথে শেষ হাসি রিয়ালের

স্পোর্টস ডেস্ক: বার্সোলোনাকে আবারও হারিয়ে শীর্ষে উঠে এসেছে রিয়াল মাদ্রিদ। বলতে গেলে, এল ক্লাসিকোর রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে শেষ হাসি রিয়ালের। আলফ্রেদো দি স্তেফানো স্টেডিয়ামে শনিবার রাতে মৌসুমের দ্বিতীয় ক্লাসিকোয় ২-১ গোলে জিতেছে ক্লাবটি।

সেইসঙ্গে বড় রেকর্ড। ১৯৭৮ সাল; অর্থাৎ ৪৩ বছর পর কাতালানদের বিপক্ষে টানা তিন জয়ের দেখা পেয়েছে লস ব্লাঙ্কসরা। পাশাপাশি দুর্দান্ত এ জয়ে ৬৬ পয়েন্ট নিয়ে বার্সা ও অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদকে টপকে টেবিলের শীর্ষে উঠে এসেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

এল ক্লাসিকো ইতিহাস-ঐতিহ্যে বারুদে ফুটবলের মঞ্চ। যদিও ধ্রুপদী লড়াইয়ে ছন্দহীন বার্সা সুপারস্টার লিওনেল মেসি। কাগজে-কলমের হিসেবে বাস্তব হলেও নিজের শেষ এল ক্লাসিকোতে ফুটবলের খুদে যাদুকরের পারফরম্যান্সে ছিল একেবারেই বিবর্ণ। জমজমাট দ্বৈরথে শেষ হাসি রিয়ালের।

এ দিন করিম বেনজেমার গোলে স্বাগতিকরা এগিয়ে যাওয়ার পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন টনি ক্রুস। বার্সেলোনার একমাত্র গোলটি করেন অস্কার মিনগেসা।

আলফ্রেদো দি স্তেফানো চেনা মাঠ। আর সেই চেনা পরিবেশে বরাবরই অপ্রতিরোধ্য রিয়াল মাদ্রিদ। মৌসুমের দ্বিতীয় এল ক্লাসিকোর শুরুতেই আধিপত্য বিস্তার বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের। যেখানে ভালভার্দে-ভিনিসিয়াস-করিম বেনজেমারা, বার্সার রক্ষণদূর্গে কাঁপন ধরিয়ে দেয়। ম্যাচের ১৪ মিনিটে লুকাসের অ্যাসিস্টে দুর্দান্ত সাইড ফ্লিকে বল জালে জড়ান ফরাসি ফরোয়ার্ড করিম বেনজেমা।

লিড নিয়ে আরও আক্রমণাত্মক হয়ে উঠে জিদান বাহিনী। ২৭ মিনিটে টনি ক্রুসের ফ্রি কিক প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডার সের্জিনোর পিঠে লেগে জালের ঠিকানা খুঁজে নেয়। স্কোর লাইন দাঁড়ায় ২-০।

বিরতির আগে মেসির কর্নার থেকে বল পোস্টে লেগে ফিরে এলে আর ব্যবধান কমানো সম্ভব হয়নি বার্সেলোনার। প্রথমার্ধের ৬৯ শতাংশ বল পায়ে রেখেও প্রতিপক্ষকে চাপে ফেলতে পারেনি কাতালানরা। যেখানে বার্সার ৬ শটের একটি ছিল মাত্র লক্ষ্যে।

যদিও বিরতির পর মাদ্রিদে শুরু হয় মুষলধারে বৃষ্টি। সেইসঙ্গে ঝড়ো বাতাস। প্রতিকূল পরিবেশে ঘুরে দাঁড়াতে প্রাণপণ চেষ্টা কোম্যান শিষ্যদের। অবশেষে ৬০ মিনিটে গোলের দেখা পায় বার্সা। ব্যবধান কমান প্রথমবারের মতো ক্লাসিকো খেলতে নামা তরুণ ডিফেন্ডার মিনগেসা।

নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে মিনগেসাকে ফাউল করে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখেন ক্যাসেমিরো। ১০ জনের দলে পরিণত হয় রিয়াল মাদ্রিদ। এরপরও যোগ করা সময়ে ইলাইশের শট ক্রসবারে বাধা পেলে আর সমতায় ফেরা হয়নি বার্সোলোনার। রেফারির শেষ বাঁশি বাজতেই এল ক্লাসিকো জয়ের আনন্দে মেতে উঠে রিয়াল শিবির।

রিয়ালের জয়ে তিনে নেমে গেল বার্সেলোনা, ৩০ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ৬৫। ১ পয়েন্ট বেশি নিয়ে শীর্ষে শিরোপাধারীরা। এক ম্যাচ কম খেলা অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের পয়েন্টও রিয়ালের সমান ৬৬। লিগে এ নিয়ে টানা চার ম্যাচ জিতল রিয়াল, অপরাজিত রইল টানা ১০ ম্যাচে। টানা ১৯ ম্যাচ অপরাজিত থাকার পর হারল বার্সা।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.