আজ: মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১ইং, ১৯শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২২শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৬ এপ্রিল ২০২১, সোমবার |



kidarkar

আপাতত চালু হচ্ছে না গণপরিবহন

শেয়ারবাজার ডেস্ক: দেশে চলমান বিধিনিষেধ আরো এক সপ্তাহ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। আগামী ৫ মে মধ্যরাত পর্যন্ত এই বিধিনিষেধ বলবত থাকবে। এই সময় গণপরিবহণ বন্ধ থাকবে।

সোমবার (২৬ এপ্রিল) দুপুরে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলামের সভাপতিত্বে উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে লকডাউন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়।

বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, চলমান ‘সর্বাত্মক লকডাউন’-এর মেয়াদ ৫ মে পর্যন্ত বাড়বে। এই সময় দোকান, মার্কেট-শপিং মল খোলা থাকলেও অফিস-আদালত বন্ধ থাকবে। চলবে না গণপরিবহনও।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ স্বস্তির জায়গায় নেই। তাই এই মুহূর্তে খুব কঠোর বা একেবারে খোলামেলা- কোনো দিকেই যেতে পারছে না সরকার। তাই বর্তমানে দোকানপাট খোলা রেখে যে পরিস্থিতি চলছে সেই পরিস্থিতিতে আরো এক সপ্তাহ পর্যবেক্ষণ করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে সরকার।

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি রোধে সরকার গত ৫ এপ্রিল থেকে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত বেশ কিছু বিধিনিষেধ জারি করে। পরে এর মেয়াদ ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়।

পরে বিধিনিষেধ আরো কঠোর করে ১৪ এপ্রিল থেকে জরুরি কাজ ছাড়া বাইরে চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। সর্বাত্মক লকডাউন হিসেবে পরিচিতি পাওয়া এই বিধিনিষেধের মেয়াদ বাড়িয়ে ২৮ এপ্রিল করা হয়।

এই সময় গণপরিবহনও বন্ধ রয়েছে। তবে ‘জীবন-জীবিকার’ কথা চিন্তা করে দোকান ও শপিংমল খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। সর্বাত্মক লকডাউন শুরুর সময় থেকে ১০দিন বন্ধ থাকার পর রবিবার (২৫ এপ্রিল) থেকে দেশজুড়ে খুলে দেয়া হয়েছে দোকানপাট এবং শপিংমল।

গত শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) ওইদিনই জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন ২৮ এপ্রিলের পর থেকে লকডাউন শিথিল করার কথা বলেন। পরদিন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের গণপরিবহন চালুর ইঙ্গিত দেন।

তবে করোনা পরিস্থিতির খুব একটা উন্নতি না হওয়ায় শেষ পর্যন্ত সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসছে সরকার।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.