আজ: বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১ইং, ২১শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১৭ জুন ২০২১, বৃহস্পতিবার |



kidarkar

দেড় মাসে সর্বোচ্চ মৃত্যু

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে ৩ হাজার ৮৪০ জনের দেহে। এ সময় ভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ৬৩ জনের।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বৃহস্পতিবার সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দেশে এ পর্যন্ত করোনা শনাক্ত হয়েছে ৮ লাখ ৪১ হাজার ৮৭ জনের দেহে। এর মধ্যে মারা গেছেন ১৩ হাজার ৩৪৫ জন।

গত দেড় মাসের মধ্যে এটাই সর্বোচ্চ মৃত্যু। এর আগে গত ৩ মে ৬৫ জনের মৃত্যুর কথা জনিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

এতে উল্লেখ করা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ৫২৬টি ল্যাবে ২৪ হাজার ৮৭১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৫.৪৪ শতাংশ। মোট শনাক্তের হার ১৩.৪২ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ৭১৪ জন সুস্থ হয়েছেন। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৭ লাখ ৭৬ হাজার ৪৬৬ জন। সুস্থতার হার ৯২.৩২ শতাংশ। সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৬৩ জনের মধ্যে ৪৫ পুরুষ ও ১৮ নারী রয়েছে।

বয়স বিবেচনায় মৃত ৫৪ জনের মধ্যে ২টি শিশু রয়েছে। এছাড়া বিশোর্ধ্ব এক, ত্রিশোর্ধ্ব সাত, চল্লিশোর্ধ্ব সাত, পঞ্চাশোর্ধ্ব ১৫, ষাটোর্ধ্ব ৩১জন। বিভাগ অনুযায়ী, ঢাকাতে ১০ জন। চট্টগ্রাম ১১, রাজশাহী ১৩, খুলনা ২০, রংপুরে ৩, সিলেটে ২, ময়মনসিংহে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

দেশে প্রথম করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে গত বছরের ৮ মার্চ। ১০ দিন পর ১৮ মার্চ প্রথম মৃত্যুর সংবাদ দেয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এর আগে ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর চীনের উহান শহরে করোনাভাইরাস সংক্রমণের তথ্য প্রকাশ করা হয়। ২০২০ সালের ৪ জানুয়ারি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা চীনে ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাবের কথা ঘোষণা করে।

পরিস্থিতি বিবেচনা করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর গত বছরের ৪ জানুয়ারি থেকেই দেশের বিমানবন্দরসহ সব স্থল ও নৌবন্দরে বিদেশ থেকে আসা যাত্রীদের স্ক্রিনিং শুরু করে। ওই বছরের ৪ মার্চ সমন্বিত করোনা কন্ট্রোল রুম চালু করা হয়।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.