আজ: বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১ইং, ২১শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৭ জুলাই ২০২১, বুধবার |



kidarkar

কিংবদন্তি দিলীপ কুমার আর নেই

বিনোদন ডেস্ক: ‘বলিউডের ট্র্যাজেডি কিং’ খ্যাত কিংবদন্তি অভিনেতা দিলীপ কুমার আর নেই। মুম্বাইয়ের হিন্দুজা হাসপাতালে স্থানীয় সময় বুধবার সকালে মৃত্যু হয় তার। দিলীপ কুমারের বয়স হয়েছিল ৯৮ বছর।

হিন্দুজা হাসপাতালের চিকিৎসক জলিল পারকার দি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে জানান, সকাল সাড়ে ৭টায় মৃত্যু হয় দিলীপ কুমারের।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে জানানো হয়, শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে গত বুধবার (৩০ জুন) হাসপাতালে ভর্তি হন দিলীপ। এক মাসের মধ্যে এটি ছিল তার দ্বিতীয়বার হাসপাতালে ভর্তি হওয়া।

এর আগে ৬ জুন দিলীপ হাসপাতালে ভর্তি হলে তাকে অক্সিজেন দেয়া হয়েছিল। সুস্থ হয়ে ১১ জুন বাড়িও ফিরেছিলেন তিনি।

কিডনির রোগ, নিউমোনিয়াসহ বিভিন্ন জটিলতা নিয়ে কয়েক বছর ধরে বারবার হাসপাতালে যেতে হয়েছিল দিলীপ কুমারকে। ৯৪তম জন্মদিনটি তিনি উদযাপন করেছিলেন হাসপাতালে বসেই।

আসছে ডিসেম্বরে তার বয়স ৯৯ বছর হতো।

দিলীপ কুমারের স্ত্রী বিখ্যাত অভিনেত্রী সায়রা বানু। ৫০ বছরের বেশি সময়ের বৈবাহিক সম্পর্ক তাদের। ১৯৬৬ সালে অভিনেত্রী সায়রাকে বিয়ে করেন দিলীপ। গোপি, সাগিনা ও বৈরাগ চলচ্চিত্রে দিলীপের সহ-অভিনেত্রী ছিলেন সায়রা।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে দিলীপ কুমারের অ্যাকাউন্ট থেকে তার মৃত্যুর বিষয়টি প্রথম নিশ্চিত করেন বন্ধু ফয়সাল ফারুকি।

ভারত বিভাজনেরও আগে, ১৯২২ সালের ১১ ডিসেম্বর বর্তমান পাকিস্তানের পেশোয়ারে জন্ম হয় দিলীপ কুমারের।

তার আসল নাম ছিল ইউসুফ খান। কিন্তু নিজের সমসাময়িক অনেক মুসলিম অভিনেতার মতোই তিনিও হিন্দি চলচ্চিত্রে নাম লেখানোর সময় হিন্দু নাম গ্রহণ করেন।

‘নয়া দৌড়’, ‘মুঘল-ই-আজম’, ‘দেবদাস’, ‘রাম অর শ্যাম’, ‘আন্দাজ’, ‘মধুমতি’, ‘গঙ্গা যমুনা’, ‘মেলা’সহ ভারতের বিখ্যাত বেশ কিছু সিনেমায় প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেন দিলীপ কুমার।

১৯৪০-এর দশকে অভিনয়ে নাম লেখান তিনি। দীর্ঘ কয়েক দশকের কর্মজীবন তার।

১৯৪৪ সালে মুক্তি পায় দিলীপ কুমারের অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র ‘জোয়ার ভাটা’; শেষ চলচ্চিত্র ‘কিলা’ মুক্তি পায় ১৯৯৮ সালে। প্রায় ৫৫ বছরে ৬৫টির বেশি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন দিলীপ।

১৯৪৯ সালে সাড়া জাগানো সিনেমা ‘আন্দাজ’ দিয়ে আলোচনায় আসেন তিনি। ত্রিমুখী প্রেমের ব্লকবাস্টার ওই সিনেমায় আরও অভিনয় করেছিলেন প্রখ্যাত দুই শিল্পী নার্গিস ও রাজ কাপুর।

পদ্মবিভূষণ, পদ্মভূষণ ও দাদা সাহেব ফালকে পুরস্কারসহ অসংখ্য সম্মাননা অর্জন করেছেন দিলীপ কুমার। পাকিস্তানের সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা নিশান-ই-ইমতিয়াজ পুরস্কারেও ভূষিত হয়েছেন এই ভারতীয় চলচ্চিত্র অভিনেতা।

ফিল্মফেয়ারে সেরা অভিনেতার প্রথম পুরস্কারটি পেয়েছিলেন দিলীপ। পরবর্তীতে আটটি ফিল্মফেয়ার সেরা অভিনেতার পুরস্কার ঝুলিতে ভরেন তিনি।

দিলীপ কুমারের মৃত্যুতে শোক নেমে এসেছে ভারতের চলচ্চিত্র জগতে। শোক জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিসহ অনেকে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.