আজ: শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২ইং, ১৫ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১৪ অগাস্ট ২০২১, শনিবার |



kidarkar

শেয়ারবাজারে ফিরেছে সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা

শেয়ারবাজার ডেস্ক: বিদায়ী সপ্তাহে বেশ উত্থানে শেষ হয়েছে শেয়ারবাজারের লেনদেন। সপ্তাহটিতে শেয়ারবাজারে সব সূচকে বড় উত্থান হয়েছে। বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। বেড়েছে টাকার পরিমাণে লেনদেনও। আর উত্থান প্রবণতার কারণে সপ্তাহটিতে বিনিয়োগকারীরা সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা মূলধন ফিরে পেয়েছে।

জানা গেছে, সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস লেনদেন শুরুর আগে ডিএসইতে বাজার মূলধন ছিল ৫ লাখ ৪৪ হাজার ৩২৬ কোটি ১০ লাখ ৯৫ হাজার টাকায়। আর সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে বাজার মূলধন দাঁড়ায় ৫ লাখ ৪৭ হাজার ৮৬৮ কোটি ৬৬ লাখ ৯২ হাজার টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে বিনিয়োগকারীরা ৩ হাজার ৫৪২ কোটি ৫৫ লাখ ৯৭ হাজার টাকা বাজার মূলধন ফিরেছে।

বিদায়ী সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ১০ হাজার ৬৫৪ কোটি ১৭ লাখ ৬৭ হাজার ৯০৭ টাকার লেনদেন হয়েছে। আর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৭ হাজার ১৩ কোটি ৯৯ লাখ ৫৭ হাজার ৩৯৬ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে লেনদেন তিন হাজার ৬৪০ কোটি ১৮ লাখ ১০ হাজার ৫১১ টাকা বা ৫২ শতাংশ বেড়েছে।

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১০৩.৩১ পয়েন্ট বা ১.৫৭ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৬৯৯.৩৯ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ১৯.৬৯ পয়েন্ট বা ১.৩৭ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৪১.৬৮ পয়েন্ট বা ১.৭৫ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়ে যথাক্রমে এক হাজার ৪৫৯.০৪ পয়েন্ট এবং দুই হাজার ৪২৭.৫৭ পয়েন্টে।

বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ৩৭৮টি প্রতিষ্ঠান শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে দর বেড়েছে ১৮৮টির বা ৪৯.৭৪ শতাংশের, কমেছে ১৭৮টির বা ৪৭.০৯ শতাংশের এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১২টির বা ৩.১৭ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বিদায়ী সপ্তাহে টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ৪০৮ কোটি ৩৯ লাখ ৩৭ হাজার ২৬২ টাকার। আর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ২৩৪ কোটি ৩০ লাখ ৫২ হাজার ৪৭৫ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে সিএসইতে লেনদেন ১৭৪ কোটি ৮ লাখ ৮৪ হাজার ৭৮৭ টাকা বা ৭৪ শতাংশ বেড়েছে।

সপ্তাহটিতে সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩২৭.০৬ পয়েন্ট বা ১.৭০ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৯ হাজার ৫১৫.৩৯ পয়েন্টে। সিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে সিএসসিএক্স ১৮৮.৭৪ পয়েন্ট বা ১.৬৩ শতাংশ, সিএসই-৩০ সূচক ৩৬৮.৪৫ পয়েন্ট বা ২.৬২ শতাংশ, সিএসই-৫০ সূচক ২৯.৮৩ পয়েন্ট বা ২.১৫ শতাংশ এবং সিএসআই ১৫.৮৯ পয়েন্ট বা ১.৩০ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১১ হাজার ৭০২.০৬ পয়েন্ট, ১৪ হাজার ৩৯২.৭৯ পয়েন্টে, এক হাজার ৪১৮.৪৪ পয়েন্টে এবং এক হাজর ২৩৭.৯৬ পয়েন্টে।

সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে ৩৪০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ১৭২টির বা ৫০.৫৯ শতাংশের দর বেড়েছে, ১৫৮টির বা ৪৬.৪৭ শতাংশের কমেছে এবং ১০টির বা ২.৯৪ শতাংশের দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.