আজ: শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২ইং, ১৫ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১৭ অগাস্ট ২০২১, মঙ্গলবার |



kidarkar

চট্টগ্রাম বন্দর থেকে পণ্য সরাসরি খালাসের অনুরোধ বিজিএমইএর

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: বেসরকারি আইসিডি’র পরিবর্তে সরাসির চট্টগ্রাম বন্দর থেকে পণ্য খালাসের উদ্যোগ নিতে বন্দর কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানিয়েছে তৈরি পোশাক প্রস্তুতকারক ও রফতানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ)।

মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়াল এডমিরাল এম শাহজাহানের সঙ্গে কার্যালয়ে সাক্ষাতের সময় বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান এ আনুরোধ জানান।

বিজিএমইএ সভাপতি বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আমদানি করা কাঁচামালবাহী কন্টেইনার বন্দরের ইয়ার্ড থেকে খালাস করতে পোশাক মালিকদের আগে সময় লাগত দুই দিন। এখন বেসরকারি আইসিডিগুলো থেকে সেই কন্টেইনার খালাস করতে সময় লাগছে ছয় থেকে সাত দিন। পণ্য খালাসের বিলম্বের কারণে পোশাক উদ্যোক্তাদেরকে আর্থিক মাশুল দিতে হচ্ছে। আবার বেসরকারি আইসিডি’তে প্রতি কন্টেইনারের জন্য যে পরিমাণ অর্থ আদায় করা হচ্ছে, তা বন্দরের তুলনায় কয়েকগুণ বেশি।

ফারুক হাসান বলেন, সামনের মাসগুলোতে পোশাক রফতানি আরও বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করছি। এই বিষয়টি সামনে রেখে চট্টগ্রাম বন্দরের সামর্থ্য বাড়ানোর বিষয়ে একটি যথাযথ পরিকল্পনা প্রণয়ন করে পদক্ষেপ গ্রহণের অনুরোধও তিনি জানান।

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়াল এডমিরাল এম. শাহজাহান বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতিতে পোশাক শিল্প অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। রফতানি প্রবৃদ্ধি অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে বন্দর কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন সীমাবদ্ধতার মধ্যেও আমদানি-রফতানি সংশ্লিষ্ট কার্যক্রম দ্রুততার সঙ্গে সম্পাদন করছে। সভায় তিনি বন্দরের অবকাঠামোগত উন্নয়ন ও সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিভিন্ন পরিকল্পনা তুলে ধরেন। এ লক্ষ্যে বিজিএমইএ-সহ সব স্টেকহোল্ডারদের সহযোগিতা কামনা করেন।

এরপর পোশাক শিল্পে রফতানি ও আমদানি পণ্যের জাহাজিকরণ নির্বিঘ্নে ও সময় সাশ্রয়ী করার জন্য বিজিএমইএর নেওয়া উদ্যোগের ধারাবাহিকতায় চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সঙ্গে একইদিন সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বিজিএমইএ’র সহ-সভাপতি রাকিবুল আলম চৌধুরী, পরিচালক তানভীর আহমেদ, আব্দুল্লাহ হিল রাকিব, হারুন অর রশিদ, নাভিদুল হক, রাজীব চৌধুরী, ইমরানুর রহমান, এম মহিউদ্দিন চৌধুরী, মোহাম্মদ আবদুস সালাম, তানভির হাবিব, এ.এম. শফিউল করিম (খোকন), হাসান (জ্যাকি), এম, এহসানুল হক, মোহাম্মদ মিরাজ-ই-মোস্তফা (কায়সার), সাবেক ১ম সহ-সভাপতি নাসির উদ্দিন চৌধুরী, সাবেক ১ম সহ-সভাপতি মঈন উদ্দিন আহমেদ (মিন্ট), সাবেক পরিচালক ও কাস্টমস (সমুদ্র) বিষয়ক বিজিএমইএ এর স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান অঞ্জন শেখর দাশ, সাবেক পরিচালক ও কাস্টম (বন্ড) বিষয়ক স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন সদস্য (প্রশাসন) জাফর আলম, সদস্য (হারবার ও মেরিন) কমডোর মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান, সচিব ওমর ফারুক, পরিচালক পরিবহন এনামুল করিম, টার্মিনাল ম্যানেজার কুদরত-ই-খুদা মিল্লাত প্রমুখ।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.