আজ: শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২ইং, ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১২ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৫ অগাস্ট ২০২১, বুধবার |



kidarkar

চিরিরবন্দরে মা-ছেলেকে অপহরণ, সিআইডির এএসপিসহ আটক ৩

শেয়ারবাজার ডেস্ক: দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে মা-ছেলেকে অপহরণ করে মুক্তিপণ চাওয়ায় রংপুর জোনের সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপারসহ ৩ জনকে আটক করা হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সদর উপজেলার বাঁশেরহাট থেকে তাঁদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন-রংপুর জোনের সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার মো. সারোয়ার কবির, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মো. হাসিনুর রহমান ও কনস্টেবল আহসানুল হক।

জানা গেছে, চিরিরবন্দর থানার নান্দেড়াই গ্রামের বাসিন্দা লুৎফর রহমানের বিরুদ্ধে ওই তিন পুলিশ কর্মকর্তা ৫০ লাখ টাকার প্রতারণার মামলার আবেদন করেন। মামলার ভিত্তিতে গত সোমবার রাত সাড়ে ৯টায় তারা লুৎফরের বাড়ি যায় তাঁরা। লুৎফর রহমানকে না পেয়ে তাঁর স্ত্রী জহুরা ও ছেলে জাহাঙ্গীরকে মাইক্রোবাসে করে তুলে নিয়ে যান তাঁরা। পরে পরিবারের কাছে ১৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন। টাকা না দিলে তাঁদের মেরে ফেলা হবে বলেও হুমকি দেওয়া হয়।

এ ঘটনায় পরিবার থানা-পুলিশের শরণাপন্ন হয় ভুক্তভোগী পরিবার। একপর্যায়ে গতকাল বিকেলে সাড়ে ৮ লাখ টাকা নিয়ে ভুক্তভোগী পরিবারকে চিরিরবন্দর উপজেলার রানীরবন্দর বাজারে আসতে বলা হয়। রানীরবন্দর বাজারে টাকা নিয়ে গেলে তাঁদের আবার কাহরোল থানার দশমাইল মোড়ে আসতে বলেন। দশমাইল গেলে ফের সদর উপজেলার বাঁশেরহাট যেতে বলা হয়। এরই মধ্যে দিনাজপুর জেলা পুলিশ ও সিআইডি দিনাজপুর যৌথভাবে ওই তিনজনকে বাঁশেরহাট থেকে আটক করেন।

তাঁদের আটক করে প্রথমে চিরিরবন্দর থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পরে দিনাজপুর এসপির সঙ্গে আলোচনা করে এসপি অফিসে নিয়ে যাওয়া হয়। বর্তমানে তাঁরা দিনাজপুর পুলিশের হেফাজতে রয়েছেন।

চিরিরবন্দর থানার ওসি সুব্রত কুমার সরকার বলেন, আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি। তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানাব।

রংপুর জোনের সিআইডির ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার (এসপি) মো. আতাউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আটক তিনজনের মধ্যে একজন এএসপি, একজন এএসআই এবং একজন কনস্টেবল রয়েছেন। তাঁদের মধ্যে এএসআই ও কনস্টেবল ২১ আগস্ট থেকে ১০ দিনের ছুটিতে ছিলেন।

পুলিশ সুপার আরও বলেন, সরকারি গাড়ি ব্যবহার না করে আমার অনুমতি ছাড়া ভাড়া করা একটি গাড়ি নিয়ে অপারেশনে যান তাঁরা। আটক করার পর আমাকে এ কথা জানানো হয়েছে। তাঁরা যে আমাদের স্টাফ তা আমি জানিয়েছি। এর বাইরে কিছু জানি না।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.