আজ: সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১ইং, ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৯শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৩ অক্টোবর ২০২১, রবিবার |



kidarkar

ভোটের দৌড়ে এগিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: দক্ষিণ কলকাতার ভবানীপুর বিধানসভা আসনের উপ-নির্বাচনের ফল গণনা চলছে। তবে এখন পর্যন্ত এগিয়ে আছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রোববার (৩ অক্টোবর) এ উপ-নির্বাচনের ফলে নির্ধারিত হবে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্যমন্ত্রীর আসনে থাকছেন কি না। না কি এই মুকুট হারাতে হবে প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপি প্রার্থী আইনজীবী প্রিয়াংকা টিবরেওয়ালের কাছে।

ভারতের গণমাধ‌্যমে বলা হয়েছে, ভবানীপুরে এখন পর্যন্ত ৭৭৫ পোস্টাল ব্যালটের গণনা শেষ হয়েছে। ইভিএম গণনার দ্বিতীয় রাউন্ড শেষে প্রায় ২৭৯৯ ভোটে এগিয়ে আছেন মমতা। অন্যদিকে, মুর্শিদাবাদের দুই কেন্দ্রে চলছে পোস্টাল ব্যালট গণনা। দু’টি কেন্দ্রেই এগিয়ে তৃণমূল। শমসেরগঞ্জে ২৫০ ভোটে এগিয়ে রয়েছেন তৃণমূল প্রার্থী আমিরুল ইসলাম। জঙ্গিপুরে ১৭১৭ ভোটে এগিয়ে তৃণমূল প্রার্থী জাকির হুসেন।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর ভবানীপুর উপ-নির্বাচন হয়। এতে ভোট পড়ে ৫৭ শতাংশের কিছু বেশি। রোববার সকাল ৮টা থেকে ভোট গণনা শুরু হয়। ভবানীপুরে মোট বুথের সংখ্যা ২৮৭টি। মোট ২১ রাউন্ড ভোট গণনা হবে। সব কটি কাউন্টিং হলে নিরাপত্তা ব‌্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার এবারের নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পূর্ব মেদিনীপুরের নন্দীগ্রাম আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগ দেওয়া শুভেন্দু অধিকারী। শুভেন্দুর কাছে ১ হাজার ৯৫৬ ভোটে পরাজিত হন মমতা। নন্দীগ্রামে মমতা হেরে গেলেও সংবিধান অনুযায়ী তিনিই মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। কিন্তু নিয়ম অনুযায়ী ছয় মাসের মধ্যে মমতাকে রাজ্যের যেকোনো একটি বিধানসভা আসন থেকে জিতে আসতে হবে। অর্থাৎ মুখ্যমন্ত্রী থাকতে হলে তাকে জিততেই হবে। তবে গণমাধ‌্যমে বলা হচ্ছে, ভবানীপুরের উপ-নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জয় নিয়ে কোনো সংশয় নেই তৃণমূল শিবিরের।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.