আজ: শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১ইং, ১৬ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২০ জানুয়ারী ২০১৫, মঙ্গলবার |



kidarkar

পুনঃঅর্থায়নের দ্বিতীয় কিস্তির অর্থ আইসিবিতে জমা

ortho-tohobilশেয়ারবাজার রিপোর্ট: দেশের পুঁজিবাজারে ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের জন্য পুনঃঅর্থায়ন সহায়তা তহবিলের দ্বিতীয় কিস্তির অর্থ হাতে পেয়েছে রাষ্ট্রয়ত্ত্ব প্রতিষ্ঠান ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশেন অব বাংলাদেশ (আইসিবি)। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের সহায়তায় গঠিত বিশেষ তহবিলের ৯০০ কোটি টাকার দ্বিতীয় কিস্তির ৩০০ কোটি টাকা সোমবার পেয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। আইসিবি তহবিলের অর্থ ব্রোকারেজ হাউস ও মার্চেন্ট ব্যাংকের মাধ্যমে ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাবে বিতরণ করবে বলে জানা গেছে।

এর আগে ১ জানুয়ারি তহবিল তদারক কমিটির সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে দ্বিতীয় কিস্তির অর্থ ছাড়ের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংককে অনুরোধ জানিয়ে চিঠি দেয় আইসিবি।

চিঠিতে বলা হয়, তহবিলের প্রথম কিস্তির ৩০০ কোটি টাকার মধ্যে ৩০ জুন ২০১৪ পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট ১৫টি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাবে মোট ২৯৯ কোটি ৮৩ লাখ টাকার ঋণ বিতরণ করা হয়েছে। ২০১৪ সালের ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত এর বিপরীতে আদায়কৃত সুদাসলের ৫২ কোটি ২৮ লাখ ৫৬ হাজার টাকা বাংলাদেশ ব্যাংককে ফেরত দিয়েছে আইসিবি। এ ছাড়া ব্যাংক স্থিতির ওপর সুদ বাবদ দেওয়া হয়েছে আরও ১৬ কোটি ২৪ লাখ ৩৮ হাজার টাকা।

সূত্র জানায়, বর্তমানে এ তহবিল থেকে ঋণ সহায়তা পেতে ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীদের পক্ষ থেকে ১৭২ কোটি টাকার আবেদন জমা রয়েছে। এখন পর্যন্ত পুনঃঅর্থায়ন সহায়তা তহবিলের সুফল ভোগ করছেন ১০ হাজার ৫৬৮ জন বিনিয়োগকারী। মাত্র ৯ শতাংশ সুদে বিভিন্ন মার্চেন্ট ব্যাংক ও ব্রোকারেজ হাউসের ক্ষতিগ্রস্ত গ্রাহকদের অনুকূলে ২৯৯ কোটি ৮২ লাখ টাকার ঋণ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে, যা আরও সিকিউরিটিজ কিনতে কাজে লাগিয়েছেন তারা। এতে বিনিয়োগকারীদের সামর্থ্য যেমন বেড়েছে, তেমনি বাজারে তারল্য ও চাহিদা বেড়েছে।

সূত্র মতে, গত ১২ জুন পর্যন্ত মোট ৪২টি প্রতিষ্ঠান পুনঃঅর্থায়ন তহবিল থেকে মোট ৪৭৯ কোটি ২৬ লাখ টাকা বরাদ্দের আবেদন জানায়। এর মধ্যে ২০টি মার্চেন্ট ব্যাংক ও ২২টি ব্রোকারেজ হাউস রয়েছে, যাদের ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীর সংখ্যা ১৬ হাজার ৩২২ জন। ওই সময় পর্যন্ত মোট ৩২টি প্রতিষ্ঠানের গ্রাহকদের ৩৫৭ কোটি ৯৬ লাখ টাকার ঋণ আবেদন মঞ্জুর করা হয়, যার সিংহভাগই পুনঃঅর্থায়ন তহবিলের প্রথম কিস্তি থেকে দেওয়া হয়।

শেয়ারবাজার/অ

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.