আজ: রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১ইং, ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২২শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৫ অক্টোবর ২০২১, সোমবার |



kidarkar

৯৩ কোটি টাকা সংগ্রহের সিদ্ধান্ত

ইসলাম অক্সিজেনের রোড শো অনুষ্ঠিত

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: বুক বিল্ডিং পদ্ধতির মাধ্যমে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) যাত্রা শুরু করলো ইসলাম অক্সিজেন লিমিটেড। এ উপলক্ষে ২৫ অক্টোবর (সোমবার) রাজধানীর রেডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেন হোটেলে রোড শো’র মাধ্যমে এই যাত্রা শুরু করে প্রতিষ্ঠানটি।

রোড শো’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইসলাম অক্সিজেন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. নুরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চেয়ারম্যান মো. শহিদুল ইসলাম, পরিচালক মো. আজহারুল ইসলাম, চিফ অপারেটিং অফিসার বদর উদ্দিন আল-হোসাইন, কোম্পানি সেক্রেটারি মো. আখতারুজ্জামান, কোম্পানীর সতন্ত্র পরিচালকগণসহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ইসলাম অক্সিজেন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. নুরুল ইসলাম বলেন, ২০২০-২০২১ অর্থ বছরে আমরা আমাদের উৎপাদন ক্ষমতা দুই কোটি পঞ্চাশ লক্ষ ঘন মিটারে উন্নীত করতে সক্ষম হয়েছি। আই.পি.ও’র মাধ্যমে বাজার থেকে উত্তলিত অর্থ দ্বারা আমরা একটি লিক্যুইড গ্যাস প্লান্ট ও একটি নতুন ফ্যাক্টরি বিল্ডিং স্থাপন করব। উক্ত প্লান্ট  দুটি স্থাপিত হলে, আশা করি দেশের অক্সিজেনসহ ও অন্যান্য  গ্যাসের চাহিদা  অনেকাংশেই পূরণ করতে সক্ষম হব। উক্ত প্লান্ট স্থাপনের  মাধ্যমে আমাদের বর্তমান উৎপাদন ক্ষমতা দুই কোটি পঞ্চাশ লক্ষ ঘন মিটার থেকে প্রায় চার কোটি পঞ্চাশ লক্ষ ঘন মিটার-এ উন্নীত হবে। এতে দেশের গ্যাস শিল্পে যে বিদেশ নির্ভরতা রয়েছে তা কমিয়ে এনে বাংলাদেশকে স্বয়ংসম্পূর্ণ গ্যাস সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করা যাবে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন, ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্চ ও চিটাগং স্টক এক্সচেঞ্চ এর প্রতিনিধি, জনতা ক্যাপিটাল এন্ড ইনভেষ্ট লিঃ-এর চীফ এক্সিকিউটিভ, সোনালী ইনভেষ্টমেন্ট লি, আই.সি.বি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিঃ ও রুপালী ইনভেষ্টমেন্ট লিঃ এর সি.ই.ও, বিভিন্ন হাসপাতালের চিকিৎসক, বিভিন্ন ব্যাংক বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও এর প্রতিনিধি, মার্চেন্ট ব্যাংক ও ব্রোকারজে হাউজের প্রতিনিধি, কোম্পানীর শেয়ারহোল্ডার, পরিচালকবৃন্দ কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ।

দেশের বাজারে শেয়ার বৃদ্ধির জন্য এবং বাংলাদেশের একটি সনামধন্য অক্সিজেন কোম্পানীতে পরিণত করতে ইসলাম অক্সিজেন লিমিটেড বুক বিল্ডিং পদ্ধতির মাধ্যমে বিএসইসির অনুমোদন সাপেক্ষে ৯৩ কোটি টাকা সংগ্রহের জন্য আইপিওতে আবেদন করছে। আইপিওতে ব্যয়ের পর প্রতিষ্ঠানটি বাকি টাকা দিয়ে নতুন ফ্যাক্টরি বিল্ডিং স্থাপন, প্ল্যান্ট এবং মেশিনারিজ স্থাপনে ব্যয় করবে। অক্সিজেন ছাড়াও আরো বিভিন্ন ধরনের মেডিকেল গ্যাসের চাহিদা রয়েছে সেই চাহিদা থেকেই শেয়ারবাজারে যাত্রা শুরু করছে প্রতিষ্ঠানটি।

প্রোজেক্টেড আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০২৫ সালে কোম্পানিটির প্রজেক্ট রেভিনিউ হবে ২৭০.২৭ কোটি টাকা এবং উৎপাদন ক্ষমতা বেড়ে হবে বছরে ৪.৮৭ কোটি পিস। আমরা বাংলাদেশের মার্কেটের চাহিদা পূরণ করে অন্যান্য উন্নত দেশগুলোতেও তখন রপ্তানি করতে পারবো। ইসলাম অক্সিজেন লিমিটেড এ বিনিয়োগ করার এখনই সেরা সময় এবং আমরা আমাদের শেয়ার হোল্ডারদের সঠিক রির্টান দিতে সক্ষম হব এবং পুঁজিবাজারে আমাদের পরবর্তী মাইলফলক শুরু করতে পারবো বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা।

প্রায় ২৯ বছর আগে বড় ভাইয়ের হাত ধরে শুরু হয় আমাদের স্টীল ট্রেড বিজনেস। পর্যায়ক্রমে একাধিক স্টীল উৎপাদন ফ্যাক্টরী গড়ে তুলে। এই স্টীল মিলের প্রয়োজনে ৩ ভাইয়ের যৌথ প্রচেষ্টায় পরবর্তীতে ইসলাম অক্সিজেন লিমিটেড, যার বানিজ্যিক উৎপাদন শুরু হয়েছিল ২০১৩ সালে ইন্ডাস্ট্রিয়াল অক্সিজেন উৎপাদনের মাধ্যমে। চাহিদা বৃদ্ধির কারণে ২য় প্লান্ট স্থাপন এবং একটি এসিটিলিন প্লান্ট গড়ে তুলে। বিভিন্ন শিল্পে কাচামাল হিসেবে ব্যবহৃত গ্যাসের ইন্ডাষ্ট্রিয়াল চাহিদা বৃদ্ধি পাওয়ায় আমরা কার্বন ডাই-অক্সাইড, আর্গন, নাইট্রোজেন, হাইড্রোজেন, হিলিয়াম, আর্গোশিল্ড, কর্ণন ও বিভিন্ন ধরনের ইন্ডাস্ট্রিয়াল মিক্সড গ্যাস উৎপাদন এবং সরবরাহ করা শুরু করে। আর এভাবেই বাংলাদেশের ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্যাসের বাজারে একটি সুদৃঢ় অবস্থান তৈরি হয়। বর্তমানে ক্রমান্বয়ে কম্প্রেড মেডিকেল এয়ার, নাইট্রাস অক্সাইড, মেডিকেল কার্বন ডাই অক্সাইড, মেডিকেল নাইট্রোজেন ও বিভিন্ন ধরনের মেডিকেল মিক্সড গ্যাস উৎপাদন ও সরবরাহ করে চলছে। যেখানে নিরবিচ্ছন্নভাবে গ্রাহকরা ২৪ ঘন্টা সেবাসমূহ পেয়ে থাকে।

কোম্পানিটির আইপিওর ব্যবস্থাপনার (ইস্যু ম্যানেজার) দায়িত্ব রয়েছে জনতা ক্যাপিটাল অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.