আজ: সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১ইং, ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১লা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২১ নভেম্বর ২০২১, রবিবার |



kidarkar

২৫ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে শোকজ ইউজিসির

শিক্ষা ডেস্ক: অস্থায়ী ক্যাম্পাসে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করায় ২৫ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে (শোকজ) বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশিন (ইউজিসি)।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, কেউ কেউ স্থায়ী ক্যাম্পাসে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করলেও কোনোটির বিরুদ্ধে অননুমোদিত প্রোগ্রাম পরিচালনা, কোনোটির বিরুদ্ধে সনদ বাণিজ্যের অভিযোগ রয়েছে। শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভর্তির আগে এগুলো যাচাই করে ভর্তি হতে বলেছে ইউজিসি।এ সংক্রান্ত তথ্য ইউজিসি ওয়েবসাইটে www.ugc.gov.bd প্রকাশ করেছে।

গত ২০১০ সাল থেকে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে স্থায়ী ক্যাম্পাসে পাঠদানের তাগাদা দিয়ে আসছে সরকার। তবে সরকারের সেই নির্দেশনা অমান্য করে দেশের অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয় বছরের পর বছর ভাড়া করা ভবনে ক্লাস-পরীক্ষা নিচ্ছে। এর কারণে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে নোটিশ পাঠিয়েছে ইউজিসি।

ইউজিসি সূত্রে জানা গেছে, দেশে বর্তমানে ১০৮টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। এর মধ্যে ২০১০ সালের আগে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করেছে ৫২টি। এই ৫২টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে স্থায়ী ক্যাম্পাসে পাঠদান শুরু করেছে ২৬টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। ২৫টি বিশ্ববিদ্যালয় এখনও ভাড়া করা ভবনে কার্যক্রম পরিচালনা করছে। আর একটি বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

রোববার (২১ নভেম্বর) ইউজিসি সদস্য (বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়) অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ চন্দ বলেন, ‘প্রতিষ্ঠানগুলোকে দীর্ঘদিন ধরে স্থায়ী ক্যাম্পাসে আইন মেনে কার্যক্রম পরিচালনার তাগাদা দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু তারা এতদিন পরও কেন আদেশ অনুযায়ী স্থায়ী ক্যাম্পাসে ফিরে যাচ্ছে না সেটা জানতে চাওয়া হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘ইউজিসির নিয়মানুযায়ী স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণের জন্য একটি বিশ্ববিদ্যালয় ১২ বছর সময় পায়। এর মধ্যে সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়কে স্থায়ী ক্যাম্পাসে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে। কিন্তু তারা সেটা ফলো করেনি। তাই শোকজ করা হয়েছে। পরিস্থিতি বিবেচনায় পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.