আজ: বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১ইং, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৫ নভেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার |



kidarkar

‘নাঈমকে চাপা দেওয়া গাড়িটি চালাচ্ছিলেন পরিচ্ছন্নতা কর্মী’

জাতীয় ডেস্ক: নটরডেম কলেজের মেধাবী শিক্ষার্থীকে নাঈম হাসানকে গাড়িচাপা দিয়ে হত্যার ঘটনায় সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতা কর্মী রাসেল খানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) দুপুরে পল্টন থানা কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে মতিঝিল জোনের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) আহাদ হোসেন এতথ্য জানান।

আহাদ হোসেন বলেন, ‘ঘটনার দিন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) গাড়িটি চালাচ্ছিল পরিচ্ছন্নতা কর্মী রাসেল খান। তিনি প্রকৃত ড্রাইভার মো. হারুনের কাছ থেকে চাবি নিয়ে সায়েদাবাদ থেকে গাড়িটি নিয়ে বের হন। এরপরই তিনি নটরডেম শিক্ষার্থীকে ধাক্কা দেন।’

তিনি বলেন, ২৪ নভেম্বর সকাল ১১টার দিকে গুলিস্তান বঙ্গবন্ধু স্কয়ারের দক্ষিণ পাশে নটরডেম কলেজের মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থী নাঈম হাসানকে ধাক্কা দেয় দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের একটি ট্রাক(রেজি: নম্বর ঢাকা মেট্রো শ ১১-১২৪৪)। এ সময় গাড়িটি চালাচ্ছিলেন সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতা কর্মী রাসেল খান। পরে গাড়িটি নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় লোকজন ও এলাকার টহল পুলিশ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের আওয়ামী লীগ অফিসের পূর্বপাশ থেকে ঘাতক ট্রাক ও চালকের আসনে থাকা রাসেল খানকে গ্রেপ্তার করে।

আহাদ হোসেন জানান, ওই ঘটনায় নিহতের বাবা শাহ আলম দেওয়ান বাদি হয়ে মামলা করেছেন। রাসেল ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের নিয়োগ প্রাপ্ত ড্রাইভার না। গাড়িটির নিয়োগপ্রাপ্ত ড্রাইভার হারুন। হারুন বদলি হিসেবে রাসেল খানকে গাড়িটি চালাতে দেন। গ্রেপ্তার হওয়া রাসেল খান ড্রাইভিং লাইসেন্স দেখাতে পারেননি।’

তিনি আরো বলেন, এ ঘটনার প্রকৃত ড্রাইভার আটক হয়েছে বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রচার করা হয়। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে হারুনকে আমরা শনাক্ত করতে পেরেছি। এখনো তাকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। ঘটনার সময় চালক হিসেবে রাসেল খানই গাড়ি চালাচ্ছিল। এ কারণে রাসেল খানকে আমরা গ্রেপ্তার করেছি।’

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে পুলিশের এ উপকমিশনার বলেন, ‘প্রাথমিক তদন্তে যতটুকু জানা গেছে রাসেল খান সিটি কর্পোরেশনের একজন পরিচ্ছন্ন কর্মী হিসেবে কাজ করতেন। তবে তিনি সিটি কর্পোরেশনে নিয়োগপত্র কিংবা এ সংক্রান্ত কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেননি।’

তিনি বলেন, ‘দুর্ঘটনার সময় ঘাতক ট্রাকটির ভেতর থেকে আটক করা অপর দুই পরিচ্ছন্নতাকর্মী গোলাম রব্বানী ও বেলালকে ওই ঘটনায় দায়ের করা মামলায় সাক্ষী হিসেবে দেখানো হচ্ছে।’

 

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.