আজ: বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২ইং, ২৩শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৬ই জিলহজ, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২২, রবিবার |



kidarkar

ইক্যুইটি এবং বন্ড মার্কেটের উন্নয়নে কাজ করছে পিবিআইএল

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থার সাথে তাল মিলিয়ে ইক্যুইটি এবং বন্ড মার্কেট এর উন্নয়নে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে পিবিআইএল। আগামী দিনগুলোতে এই অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকার আশা প্রকাশ করেছেন কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও ড. মোঃ তাবারক হোসেন ভূঁঞা।

রবিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর বনানিতে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

পিবিআইএল’র এমডি বলেন, দেশের পুঁজিবাজারে ভালো কোম্পানি আনতে কাজ করছে পিবিআইএল। বিগত বছরে ৪২৮ কোটি টাকার মূলধন সংগ্রহ করেছে এই মার্চেন্ট ব্যাংক। যারা এখন বিনিয়োগকারীদের আস্থা অর্জন করেছে এবং ভালো লভ্যাংশ দিচ্ছে। ভবিষ্যতেও বাজারে শক্তিশালি কোম্পানি আনতে পিবিআইএল বদ্ধ পরিকর।

তিনি আরও বলেন, পিবিআইএল মার্চেন্ট ব্যাংক হিসেবে পোর্টফোলিও ম্যানেজমেন্ট সার্ভিস প্রদান করে আসছে যা বিগত বছর গুলোতে প্রত্যাশিত রিটার্ন দিয়েছে এবং উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রতিষ্ঠানটি গ্রাহক সেবা এবং আইনি কাঠামোয় থেকে ব্যবসা পরিচালনায় বিশ্বাসী। এই লক্ষ্যে পিবিআই কর্মকর্তাদের ব্যক্তিগত উৎকর্ষের প্রতি লক্ষ্য রেখে প্রতিনিয়ত দেশে এবং দেশের বাইরে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে আসছে।

পিবিআইএল বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন অনুমোদিত একটি মার্চেন্ট ব্যাংক। ৩০০ কোটি টাকা পরিশোধিত মূলধনের কোম্পানিটি একটি পূর্ণাঙ্গ মার্চেন্ট ব্যাংক হিসাবে তার গ্রাহকদের বিভিন্ন পরিষেবা যেমন: ইস্যু ম্যানেজমেন্ট, কর্পোরেট অ্যাডভাইজরি, আন্ডাররাইটিং, ট্রাস্টি সেবা এবং পোর্টফোলিও ম্যানেজমেন্ট সেবা প্রদান করে আসছে। প্রথাগত সেবার পাশাপাশি পিবিআইএল বিভিন্ন কোম্পানির একীভূতকরণ ও অধিগ্রহণ এর পরামর্শক এবং কোম্পানির মূলধন উত্তোলন ও অর্থায়নে কাজ করে যাচ্ছে।

এর আগে তারা ইস্যু-ম্যানেজার হিসেবে ইউনিয়ন ব্যাংক লিমিটেডকে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত করেছে। ব্যাংকটি বাজার থেকে ৪২৮ কোটি টাকার মূলধন সংগ্রহ করে যা ব্যাংকিং সেক্টর কোম্পানিগুলোর মধ্যে বৃহত্তম ও দেশের পুঁজিবাজার ইতিহাসের চতুর্থ বৃহত্তম প্রাথমিক গণপ্রস্তাব।

পাশাপাশি বিগত বছরে পিবিআইএল ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লি:, আল-আরাফা ইসলামী ব্যাংক লি: সহ চারটি শরীয়াহ ভিত্তিক ব্যাংকের পারপিচুয়াল বন্ডের ইস্যু ম্যানেজার এবং লিড এ্যারেন্জার হিসেবে দুই হাজার ৪০০ কোটি টাকা সংগ্রহ এবং বন্ড গুলোকে সেকেন্ডারি মার্কেটে লেনদেন উপযোগী করতে সহায়তা করে। ইতিমধ্যে আল-আরাফা ইসলামী ব্যাংক লিঃ ও ইউনিয়ন ব্যাংক লিঃ এর সাব-অর্ডিনেটেড বন্ডে ইস্যু ম্যানেজার এবং লিড এ্যারেঞ্জার হিসেবে এক হাজার ৪০০ কোটি টাকা সংগ্রহ করে দিয়েছে। এছাড়াও পিবিআইএল বিভিন্ন বন্ডের ট্রাস্টি সেবা প্রদান করে আসছে।

বর্তমানে শরিয়াহ ভিত্তিক গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংক লিঃ ও মেঘনা ইন্স্যুরেন্স লিঃ এর আইপিওর ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে কাজ করছে পিবিআইএল। কোম্পানিগুলো অতি শীঘ্রই নিয়ন্ত্রক সংস্থার অনুমোদন পাবে বলে প্রতিষ্ঠানটি আশাবাদী। এর পাশাপাশি, বেস্ট ইলেকট্রনিক্স লি:, বেস্ট লাইফ ইন্সুরেন্স লি: সহ আরও কিছু মানসম্মত কোম্পানিকে মূল বাজারে অন্তর্ভুক্তি এবং এসএমই (এসএমই) প্ল্যাটফর্মের জন্য বাছাইকৃত কিছু কোম্পানিকে নিয়েও কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটি।

পিবিআইএল আয়োজিত ‘মিট দ্য প্রেস’-এ আরও উপস্থিত ছিলেন, চিফ অপারেটিং অফিসার খন্দকার রায়হান আলী এফসিএ, হেড অব প্রাইমারি মার্কেট অপারেশন নাবিলা রহমান, এবং হেড অব ইস্যু ম্যানেজমেন্ট এইচ. এ. মামুন।

১ টি মতামত “ইক্যুইটি এবং বন্ড মার্কেটের উন্নয়নে কাজ করছে পিবিআইএল”

  • আজিম says:

    ইকুইটি এবং বনড মার্কেটের উন্নয়ন না করে ব্যা্্কের শেয়ারের দিকে নজর দিন। তাহলে শেয়ার বাজার অনেক দুর এগূবে এবং অনেক সম্মানিত হবে। পি ই দিক চিন্তা করলে ব্যা্্কের শেয়ার এখনো দশ এর নিচে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.