আজ: শনিবার, ২১ মে ২০২২ইং, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৮ই শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১৫ মার্চ ২০২২, মঙ্গলবার |



kidarkar

কমিটি ঘোষণা ছাড়াই রাবি হল সম্মেলন সম্পন্ন ছাত্রলীগের

জাতীয় ডেস্ক: দীর্ঘ ছয় বছর পর ১৪ মার্চ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) শাখা ছাত্রলীগের হল সম্মেলন হয়েছে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো হল ইউনিটের কমিটি ঘোষণা ছাড়াই শেষ হয়েছে এ সম্মেলন। পরবর্তী সময়ে আওয়ামী লীগ ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করে কমিটি ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন সম্মেলনের উদ্বোধক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া।

সাবাশ বাংলাদেশ মাঠে বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৭টি আবাসিক হলের সম্মেলন হয়। এর আগে জাতীয় ও ছাত্রলীগের দলীয় পতাকা উত্তোলন করে বেলুন-ফেস্টুন উড়িয়ে এ সম্মেলনের উদ্বোধন করা হয়।

এসময় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ‘টেলিভিশনের পর্দায় চোখ রাখলেই দেখা যায় পদ্মা সেতু, মেট্রোরেল, যমুনা সেতুর রেল সংযোগ, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র, কয়লাভিত্তিক রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণসহ নানা উন্নয়ন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশব্যাপী উন্নয়ন দৃশ্যমান হচ্ছে।’

‘দেশের উন্নয়নের সাথে রাজশাহীর ব্যাপক উন্নয়ন করা হচ্ছে। রাজশাহীতে প্রশস্ত সড়ক নির্মাণ করে লাগানো হচ্ছে দৃষ্টিনন্দন সড়কবাতি। ইতোমধ্যে দুইটি সড়কে লাগানো হয়েছে। তালাইমারি থেকে আলুপট্টি সড়কে অত্যাধুনিক দৃষ্টিনন্দন সড়কবাতি লাগানোর কাজ চলছে, যা শিগগিরই উদ্বোধন করা হবে’, বলেন তিনি।

তথ্য ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘প্রতিটি ক্যাম্পাসকে গ্রিন-ক্লিন করে গড়ে তুলতে হবে। বাংলাদেশ এখন সবক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের জন্য প্রস্তুত থাকতে বলেছেন। এজন্য তরুণদের তৈরি করতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে আইটি কেন্দ্রিক নানা পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। রাবি উপাচার্যকে এ বিষয়ে পাঠ্যক্রমে কিছু অর্ন্তভুক্তির জন্য অনুরোধ জানিয়েছি।’

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, ‘আজকের এই হল সম্মেলনের মাধ্যমে ছাত্রলীগের অনেক ত্যাগী, ছাত্রবান্ধব নেতা উঠে আসবে। যারা নিজের জন্য কাজ না করে শিক্ষার্থীদের জন্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য, দেশের জন্য কাজ করবে। আমরা এমন কোনো কাজ করবো না, যাতে শেখ হাসিনার উন্নয়ন কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত হয়।’

সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অনিল কুমার সরকার, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াদুদ দারা, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আলী কামাল, ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য, আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ডা. আনিকা ফারিহা জামান অর্ণা উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া, সম্মেলনে কেন্দ্রীয় ও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শাহ্ মখদুম হল ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সভাপতি আরিফ বিন জহিরের সভাপতিত্বে শহীদ শামসুজ্জোহা হলের সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক বরজাহান আলীর সঞ্চালনায় এতে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য দেন রাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.