আজ: বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২ইং, ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৩শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৭ মার্চ ২০২২, রবিবার |



kidarkar

পতনে শেয়ারবাজার

শেয়ারবাজার ডেস্ক : সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রোববার (২৭ মার্চ) পতনের মধ্য দিয়ে লেনদেন শেষ হয়েছে দেশের শেয়ারবাজারে শুর। এদিন শেয়ারবাজারের প্রধান প্রধান সূচক কমেছে। একই সাথে কমেছে লেনদেনে অংশ নেয়া অধিকাংশ সিকিউরিটিজের দর। তবে টাকার পরিমাণে লেনদেন আগের দিন থেকে কিছুটা বেড়েছে।

আজ ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১১.৩২ পয়েন্ট বা ০.১৬ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৭৪১.৮৭ পয়েন্টে। ডিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক ৩.৮৩ পয়েন্ট বা ০.১৫ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে দুই হাজার ৪৬২.৯০ পয়েন্টে। তবে শরিয়াহ সূচক ১.২৬ পয়েন্ট বা ০.০৮ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৪৫৮.০৭ পয়েন্টে।

ডিএসইতে আজ টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ৮৫৮ কোটি ৮৮ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট। যা আগের কার্যদিবস থেকে ২৯ কোটি ২৯ লাখ টাকা বেশি। আগের কার্যদিবস লেনদেন হয়েছিল ৮২৯ কোটি ৫৯ লাখ টাকার।

ডিএসইতে আজ ৩৭৮টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১১৭টির বা ৩০.৯৫ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। দর কমেছে ২১৯টির বা ৫৭.৯৪ শতাংশের এবং ৪২টি বা ১১.১১ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ৫৩.১৯ পয়েন্ট বা ০.২৬ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১৯ হাজার ৭৭১.৩৮ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৯৬টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৭৮টির, কমেছে ১৭৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪০টির দর। আজ সিএসইতে ২৬ কোটি ৬৬ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

৩ উত্তর “পতনে শেয়ারবাজার”

  • Anonymous says:

    শেয়ার বাজার ভবিষ্যতে অনেক ভালো করতে হলে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বিনিয়োগ সীমা ক্রয় মূল্য নির্ধারণ করতে হবে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর মহোদয় শেয়ার বাজার নিয়ে যদি সাডা না দেয় কোন লাভ হবে বলে আমরা সাধারণ বিনিয়োগকারীরা আশা করি না । ব্যাংগুলো বিনিয়োগে এগিয়ে আসবেন না বিএসইসি বর্তমান চেয়ারম্যান মহদোয় এর অনেক চেষ্টা করে যাচ্ছে অতিতে অন্য কোন চেয়ারম্যান এধরনের কোন চেষ্টা করে না ই

  • এম এন আজিম says:

    বাজার মূল্য গণনা আর ক্রয় মূল্য গণনা এই ইস্যুগুলো পুরান হয়ে গেছে। এই কথাগুলো আমাদের আপাতত বাদ করতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের হাতে একটা গ্রীন সিগন্যাল আছে, সেটা দিলে বাজারে খেলা শুরু হয়ে যাবে। এখনো পঞ্চাশ হাজার কোটি টাকার উপরে বিনিয়োগ করার সামর্থ্য আছে বিভিন্ন ব্যাংকেগুলোর। শুধু বাংলাদেশ ব্যাংকের একটা গ্রীন সিগন্যালের অপেক্ষায় আছে। আশা করছি শেয়ার বাজার ভবিষ্যতে অনেকদুর এগিয়ে যাবে। বাংলাদেশ ব্যাংক শেয়ার বাজার উন্নতির জন্য অগ্রগামী ভুমিকা পালন করবে।

  • Khalilurrahman says:

    বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর মহোদয়ের কাছে আকুল আবেদন । শেয়ার বাজার টাকে রক্ষা করে আমাদের মতো সাধারন বিনিয়োগকারীদের পুঁজি বিনিয়োগ করার সুযোগ করে দিন।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.