আজ: বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ইং, ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১লা রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২১ এপ্রিল ২০২২, বৃহস্পতিবার |



kidarkar

সাংবাদিক নির্যাতনকারীদের দ্রুতই বিচারের আতায় আনতে হবে: ঢাকসাস সভাপতি

নিজস্ব প্রতিবেদক: নিউমার্কেট এলাকায় ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের সংবাদ সংগ্রহকালে সাংবাদিকদের উপর হামলাকারীদের বিচারের দাবি জানিয়েছেন ঢাকা কলেজ সাংবাদিক সমিতির সভাপতি এ জেড ভূঁইয়া আনাস। সে সাথে সাগর-রুনিসহ ইতোপূর্বে যে সকল সাংবাদিক হামলা ও হত্যার শিকার হয়েছেন এর সাথে জড়িতদের দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল গঠন করে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) দুপুর দুইটায় ঢাকা কলেজের প্রধান ফটকে ঢাকা কলেজ সাংবাদিক সমিতি আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এসব দাবি জানান।

ঢাকসাস সভাপতি বলেন, গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতা হচ্ছে রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ব। এই স্তম্ব ভেঙে পড়লে দেশের স্বাধীনতার, সার্বভৌমত্ব ও নিরাপত্তা হুমকির মুখে পড়বে। পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে সাংবাদিকদের ওপর হামলা চালানো সন্ত্রাসীরা দেশ, জাতি ও সরকারের শত্রু। এর জন্য দায়ীদের বিচারের মুখোমুখী করতে হবে।

এ সময় ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের তালাশ অনুষ্ঠানের উপস্থাপক ও ঢাকাসাসের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক নাজমুল সাঈদ বলেন, অতিতেও আমরা দেখেছি কোন আন্দোলনে সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে উভয় পক্ষই সাংবাদিকদের টার্গেটে রুপান্তরিত করেন। মূলত এখন পর্যন্ত কোন সাংবাদিক নির্যাতনের দৃষ্টান্ত স্থাপিত হয়নি বলেই বারবার সাংবাদিকদের উপর হামলা চালানো হচ্ছে। তাই আমরা সরকারের কাছে সাংবাদিকদের উপর হামলাকারীদের বিচারের দাবি জানাচ্ছি।

সাবেক সভাপতি নাজমুস সাকিব বলেন, গণমাধ্যমের উপর বারবার হামলা সুষ্ঠু তথ্য প্রবাহের গতিধারাকে ব্যহত করছে। এর বিচার হচ্ছে না বলেই হামলা হচ্ছে। অবিলম্বে তিনি হামলাকারীদের খুঁজে বের করে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান।

সাবেক সভাপতি বিল্লাল হোসেন সাগর বলেন, নিউমার্কেট সংঘর্ষের ঘটনায় ব্যবসায়ীদের হাতে যে সকল সাংবাদিক আহত হয়েছে ফুটেজ দেখে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নিবে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দায়িত্ব হামলায় জড়িত অপরাধী খুঁজে বের করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা।

সাবেক সহসভাপতি ও বাংলাভিশনের রিপোর্টার কেফায়েত শাকিল বলেন, নিউমার্কেটে গত তিন দিনে অন্তত ২০ জন সাংবাদিক আহত হয়েছেন। গতরাতে দুই পক্ষ আলোচনা করে সমঝোতায় এসেছেন। দোকান ও খুলেছে। কিন্তু দু:খজনক বিষয় হলো এতগুলো সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনায় কারও কোনো পদক্ষেপ দেখা যায়নি। আমরা দেখেছি পুলিশের সমানে আমাদের সহকর্মীদের ওপর আঘাত হয়েছে। কিন্তু পুলিশ কোনো ভূমিকা রাখেনি। এসব হামলার ভিডিও ও স্থিরচিত্রও রয়েছে। এসব চিত্র দেখে দোষিদের দ্রুত বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান তিনি।

ঢাকসাসের সাধারণ সম্পাদক আবদুল হাকিম বলেন, সোমবার রাতে রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষ শুরু হয়। এর জের ধরে মঙ্গলবার সকাল থেকে দফায় দফায় এ সংঘর্ষ চলতে থাকে। যা ২০ এপ্রিল পযন্ত গড়ায়। এসময় খবর সংগ্রহের সময় সন্ত্রাসীদের হামলায় অন্তত ২০ জন সাংবাদিক আহত হয়েছেন। এই হামলায় জড়িতদের বিচারের দাবি জানাচ্ছি।

এছাড়াও মানববন্ধনে অংশ নেয় ঢাকা কলেজ সাংবাদিক সমিতির অর্থ সম্পাদক দেলাওয়ার হোসাইন দোলন, দফতর, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ওবাইদুর সাঈদ সহ কার্যনির্বহী সদস্য আব্দুল কাইয়ুম ও সাধারণ সদস্যরা।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.