আজ: বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ইং, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩০শে সফর, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৮ অগাস্ট ২০২২, সোমবার |



kidarkar

বিএসইসির সঙ্গে ডিবিএর বৈঠকে চার সিদ্ধান্ত

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: নিজ নিজ সামর্থ্য অনুযায়ী প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী হিসেবে স্টকডিলাররা আগামী কয়েকদিন বিনিয়োগ বৃদ্ধির উদ্যোগ গ্রহণ করাসহ ৪ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আজ ৮ আগস্ট বিকাল ৪টায় বাংলাদেশ সিকিউকিরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন এবং ডিবিএসহ শীর্ষ স্টকব্রোকার/স্টকডিলারদের’ প্রতিনিধিবৃন্দের সঙ্গে অনুষ্ঠিত বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সভায়, বর্তমান বাজার পরিস্থিতি ও বাজার মধ্যস্থতাকারীদের ভূমিকার উপর আলোকপাত করা হয়। এসময় পুঁজিবাজারে চাহিদা বৃদ্ধি, বিনিয়োগকারীদের আস্থা তৈরিসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এছাড়াও ডিএসইসহ ডিবিএ’র পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতা প্রদানসহ নিম্নোক্ত বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়ে একমত পোষণ করা হয়:

০১। নিজ নিজ সামর্থ মোতাবেক প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী হিসেবে স্টকডিলারগণ আগামী কয়েকদিন বিনিয়োগ বৃদ্ধির উদ্যোগ গ্রহণ করবে।

০২। বিগত সময়ে শেয়ার বিক্রি করে অনেক বিনিয়োগকারীবর্তমানে নিষ্ক্রিয় (Inactive) অবস্থায় রয়েছে। উক্ত বিনিয়োগকারীদের উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে পুঁজিবাজারে পুনরায় বিনিয়োগের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। এছাড়াও যেসকল ইন-অ্যাকটিভ অ্যাকউন্ট আছে তাদের সঙ্গে কার্যকর যোগাযোগসহ উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে পুঁজিবাজারে নতুন বিনিয়োগের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে।

০৩। প্রত্যেক স্টক ব্রোকার তাদের বিদ্যমান বিনিয়োগকারী ছাড়া নতুন সম্ভাব্য প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদেরউদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে পুঁজিবাজারে নতুন বিনিয়োগের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। যা বাজারে চাহিদা ও তারল্য বৃদ্ধির মাধ্যমে পুঁজিবাজারকে গতিশীল করতে সহায়তা করবে।

০৪। বাংলাদেশের যেসকল জেলায় স্টক ব্রোকারের মাধ্যমে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের সুযোগ নেই, সেসকল জেলায় বিনিয়োগ শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার মাধ্যমে বিনিয়োগকারীদের সচেতনতা বৃদ্ধি করে এবং স্টকব্রোকারসমূহের ডিজিটাল বুথ অথবা শাখা অফিস খোলার মাধ্যমে স্থানীয় বিনিয়োগকারীদের পুঁজিবাজারেবিনিয়োগের সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে।

বাংলাদেশ সিকিউকিরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের কমিশনার ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় পুঁজিবাজারে ব্রোকারদের শীর্ষ সংগঠন ‌‌‘ডিএসই ব্রোকার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ডিবিএ)’র প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া উক্ত সভায় বিএসইসি’র নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মোহাম্মদ রেজাউল করিম ও বিএসইসি’র ‘মার্কেট সার্ভেইল্যান্স অ্যান্ড ইন্টেলিজেন্স’ বিভাগের ঊর্ধ্বতন কমকর্তাবৃন্দ, ডিএসইর ঊর্ধ্বতন কমকর্তাবৃন্দ এবং ডিবিএ’র সভাপতি রিচার্ড ডি‌‌’ রোজারিওসহ ডিএসই’র শীর্ষ স্টকব্রোকার/স্টকডিলারদের প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভায় বিএসইসি’র কমিশনার ড. শেখ শামসুদ্দিনআহমদ সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে এবং কমিশনের পক্ষ থেকে ডিবিএ’র সুপারিশসমূহ পর্যায়ক্রমে বাস্তবায়ন করা হবে বলে আশ্বস্ত করেন। সর্বশেষে সংশ্লিষ্ট সকলকে পুঁজিবাজারের উন্নয়নে একসাথে কাজ করার আহবান জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

১ টি মতামত “বিএসইসির সঙ্গে ডিবিএর বৈঠকে চার সিদ্ধান্ত”

  • জন says:

    এ পর্যন্ত অনেক নামী দামী আশ্বাসবাণী, মিটিং সিটিং, ফান্ডামেন্টাল বিশ্লেষণ এবং সকল প্রকার মন্ত্রতন্ত্র পুঁজি বাজারে সব অকার্যকর। বিনিয়োগের শেয়ার ভেদে ৩০%-৫০% হাওয়া। অনেকে নিঃশ্ব। বাংলাদেশের পেক্ষাপটে শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ অত্যান্ত ঝুঁকিপূর্ন।
    শেয়ার বাজার ভাল করা সম্ভব হবে যদি নতুন আইন করে প্রত্যেকটি সেক্টরের দূর্নীতিবাজদের চিহ্নিত করে জনসমক্ষে শুলে চড়ানো যায়। অন্যথায় পুঁজি বাজার ভাল হওয়ার নয়।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.