আজ: মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ইং, ২৪শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৪ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, সোমবার |


kidarkar

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্য আজ


আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হচ্ছে সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর)। নানা আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে রানিকে শেষবিদায় জানানোর আয়োজন করা হয়েছে। রানির শেষকৃত্যের অনুষ্ঠানে অংশ নিতে এরই মধ্যে বিভিন্ন দেশের নেতারা হাজির হয়েছেন।

বাকিংহাম প্রাসাদে রাজা তৃতীয় চার্লসের আমন্ত্রণে এক সংবর্ধনায় গতরাতে আমন্ত্রিত রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানরা প্রথমবারের মতো একত্রিত হয়েছেন। আজ তারা অংশ নেবেন ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে রানির জন্য আয়োজিত রাষ্ট্রীয় প্রার্থনায়।

ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবে গির্জায় লোকজনের ধারণক্ষমতা দুই হাজার। তাই পাঁচ শতাধিক বিদেশি অতিথির বাইরে অন্যদের সেখানে প্রবেশাধিকার সীমিত করা হয়েছে।

ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুতে পুরো দেশেই শোকের ছায়া নেমে এসেছে। এর আগে বাকিংহাম প্রাসাদ থেকে দেওয়া এক ঘোষণায় জানানো হয়, তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে ১৯ সেপ্টেম্বর। ব্রিটেনে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে এই দিনটিতে।

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ ছিলেন ব্রিটেনের ইতিহাসে দীর্ঘতম সময় সিংহাসনে আসীন রাজশাসক। স্কটল্যান্ডের ব্যালমোরাল প্রাসাদে তার পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে গত ৮ সেপ্টেম্বর ৯৬ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

এদিকে, রানির শেষকৃত্য উপলক্ষ্যে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা জারি করা হয়েছে।

রানির রাষ্ট্রীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার প্রকাশিত বিবরণে বলা হয়েছে সোমবার সকালের দিকে রানির মরদেহ ওয়েস্টমিনস্টার প্রাসাদ থেকে ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে নিয়ে যাওয়া হবে।

রাজা তৃতীয় চার্লস ও রাজপরিবারের সদস্যরা কফিনের সঙ্গে সঙ্গে পায়ে হেঁটে যাবেন। রাজকীয় নৌবাহিনীর ১৪২ জন নাবিক একটি কামানবাহী শকটে করে কফিনটি টেনে নিয়ে যাবেন। তখন সেখানে দুই হাজারেরও বেশি আমন্ত্রিত অতিথি উপস্থিত থাকবেন।

সোমবার সকাল ১১টায় শেষকৃত্য শুরু হয়ে দুপুরের ঠিক আগে অনুষ্ঠানটি শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সারা দেশব্যাপী দুই মিনিটের নীরবতা পালন করা হবে।

ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে রাষ্ট্রীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার পর রানির মরদেহ লন্ডনের পশ্চিমে উইন্ডসর কা‌সলে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে উইন্ডসর কাসলের পাশে সেন্ট জর্জ গির্জায় আরেকবার ছোট করে প্রার্থনা করা হবে।

উইন্ডসরের ডিন সেখানে একটি প্রার্থনা পরিচালনা করবেন। প্রায় ৮০০ জন লোক এতে উপস্থিত থাকবেন বলে মনে করা হচ্ছে। এসব হয়ে যাওয়ার পর সোমবারই রানির পরিবারের ঘনিষ্ঠ লোকজনদের জন্য আরেকটি প্রার্থনা সভা হবে। এরপর রানির কফিনটি সেন্ট জর্জ গির্জার রয়্যাল ভল্টে সমাহিত করা হবে। যেখানে রানির স্বামী এডিনবার্গের প্রয়াত ডিউকের মরদেহ সমাধিস্থ করা হয়েছে।

সূত্র: বিবিসি, ব্লুমবার্গ


আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.