আজ: শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩ইং, ১৪ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা রজব, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৩ নভেম্বর ২০২২, বৃহস্পতিবার |


kidarkar

নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ব্যবহারে সাশ্রয়ী হতে হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী


নিজস্ব প্রতিবেদক : চলমান বিশ্ব পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন। তাই নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ব্যবহারে সকলকে দায়িত্বশীল ও সাশ্রয়ী হতে বললেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

বৃহস্পতিবার ঢাকায় বাংলাদেশ সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় আয়োজিত ‘দ্রব্যমূল্য ও বাজার পরিস্থিতি পর্যালোচনা’ সংক্রান্ত টাস্কফোর্স এর ৪র্থ সভায় এ কথা বলেন তিনি।

দেশে কোন পণ্যের ঘাটতি নেই উল্লেখ করে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘দেশে পর্যাপ্ত নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য রয়েছে। কোন পণ্যের সংকটের সম্ভাবনা নেই। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে সরকার সব ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।’

তিনি বলেন, ‘গ্যাসের চাপ কম থাকার কারণে চিনি উৎপাদন কিছুটা কম হয়েছে। তবে দেশে চিনির মজুত পর্যাপ্ত রয়েছে। গ্যাসের সরবরাহ বৃদ্ধিসহ প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে, চিনি উৎপাদন ও মূল্য স্বাভাবিক হয়ে আসবে।’

এদিকে ইউক্রেন থেকে গম আমদানীতে সমস্যা হবার কারণে কানাডা থেকে তুলনামূলক বেশি দামে দেশে গম আদানি করা হয়েছে, সরবরাহ এখন স্বাভাবিক রয়েছে বলেও জানান তিনি।

এক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে এক কোটি কার্ডের মাধ্যমে দেশের স্বল্প আয়ের প্রায় ৫ কোটি মানুষকে সাশ্রয়ীমূল্যে নির্ধারিত ডিলারের মাধ্যমে প্রতি মাসে তেল, ডাল, চিনি সহকয়েকটি নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য দেয়া হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ব্যবহারে সকলকে দায়িত্বশীল ও সাশ্রয়ী হতে হবে। চলমান বিশ্ব পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন। এ মহুর্তে বিশ্ববাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য উঠা-নামা করছে। মার্কিন ডলারের মূল্য বৃদ্ধির কারণে মানুষ প্রত্যাশিত সুবিধা পাচ্ছে না। সরকার দেশে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের সরবরাহ, মজুত ও মূল্য স্বাভাবিক রাখতে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।’

টিপু মুনশি বলেন, ‘দেশে বিদ্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভাবিক হচ্ছে। আতঙ্কিত হবার কারণ নেই। দেশের নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের সরবরাহ, মজুত এবং মূল্য স্বাভাবিক রাখতে কঠর নজরদারি করা হচ্ছে।’


আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.