আজ: মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ইং, ২৪শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৪ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৫ নভেম্বর ২০২২, শনিবার |


kidarkar

দেশের মানুষের জন্যই রিজার্ভ ব্যবহার করতে হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী


নিজস্ব প্রতিবেদক :করোনা মহামারির অভিঘাত ও রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রেক্ষাপটে বিশ্বজুড়ে সব পণ্যের দাম বেড়েছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এ ধাক্কা আমাদের দেশে এসেও পড়ছে। মূল্যস্ফীতির জন্য সব দেশই আজকে হিমশিম খাচ্ছে, প্রত্যেকের রিজার্ভ ব্যবহার করে চলতে হচ্ছে। আমাদেরও রিজার্ভ ব্যবহার করতে হচ্ছে এবং সেটা দেশের মানুষের জন্য।

খাদ্য উৎপাদন বাড়ানোর পাশাপাশি দেশকে আরও এগিয়ে নিতে জনগণকে একত্রিত করে সমবায় গঠনের মাধ্যমে কার্যক্রম পরিচালনার জন্য দেশের যুব সমাজের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

সরকারপ্রধান বলেন, আমাদের যুব সমাজকে এগিয়ে আসতে হবে। যদি যুব সমাজ এগিয়ে এসে সমগ্র গ্রাম ও মানুষকে এক করে সমবায়ের মাধ্যমে কার্যক্রম চালাতে পারে তাহলে আমরা অনেক দূর এগিয়ে যেতে পারবো। কারণ, সবারই একটা দায়িত্ব থাকবে।

শনিবার (৫ নভেম্বর) সকালে ৫১তম জাতীয় সমবায় দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে সরকারপ্রধান এসব কথা বলেন। গণভবন থেকে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন তিনি।

সরকারকে চড়া দামে সার, জ্বালানি তেল ও ভোজ্যতেল কিনতে হচ্ছে উল্লেখ করে সবাইকে মিতব্যয়ী ও সঞ্চয়ী হওয়ার আহ্বান পুনর্ব্যক্ত করেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি যুব সমাজকে চাকরির পেছনে না ছুটে বরং সমবায় গঠনের মাধ্যমে খাদ্য উৎপাদন যেমন হাঁস-মুরগি পালন, মাছ চাষ ও অন্যান্য কাজে যুক্ত হওয়ার পরামর্শ দেন।

সরকারের স্থাপিত ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলের কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, আপনারা (যুব সমাজ) সেখানে খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ কারখানা স্থাপন করতে পারেন। যা শুধু স্থানীয় চাহিদাই মেটাবে না, বিদেশেও রপ্তানি করা সম্ভব হবে। সমবায়ের মাধ্যমে দেশ কাঙ্ক্ষিত অর্থনৈতিক সাফল্য অর্জন করতে পারে।

কোভিড-১৯ মহামারি ও রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের পাশাপাশি বিভিন্ন দেশের নিষেধাজ্ঞা ও পাল্টা নিষেধাজ্ঞার প্রভাবে বাংলাদেশে সৃষ্ট সংকট কাটিয়ে উঠতে সবাইকে একত্রিত হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সমবায় অধিদপ্তরের নিবন্ধক ও মহাপরিচালক ড. তরুণ কান্তি সিকদার।

এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম এবং পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব মো. মশিউর রহমান।

অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতীয় সমবায় দিবসের একটি ভিডিও তথ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। এতে মোট ৯টি সমবায় সমিতি এবং একজন ব্যক্তিকে জাতীয় সমবায় পুরস্কার-২০২১ প্রদান করা হয়।

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।


আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.