আজ: রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ইং, ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৯ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৩ নভেম্বর ২০২২, বুধবার |


kidarkar

জাপানের কাছে হেরে বিশ্বকাপের শুরু জার্মানির


স্পোর্টস ডেস্ক : গতকাল সৌদি আরবের কাছে আর্জেন্টিনার হারের ‘শক’টা কাটেনি এখনো। এরই মধ্যে আরও এক অঘটন দেখল কাতার বিশ্বকাপ। জাপানের কাছে হেরে গেলো জার্মানি। আর এই হার দিয়েই বিশ্বকাপের শুরু করলো জার্মানি। শুরুতে জাপান পিছিয়ে পড়েও শেষের ঝলকে ২-১ গোলের দারুণ এক জয় তুলে নিয়েছে দলটি।

কাগজে কলমে জার্মানি জাপান থেকে ঢের ভালো দল। র‍্যাঙ্কিংয়ে জাপানের অবস্থান ২৪, আর জার্মানির অবস্থান ১১তে। খেলোয়াড়দের নাম, ধারে-ভারে দুই দলের তুলনা চলে না। সেই জাপানই কি-না হারিয়ে দিল জার্মানিকে!

অথচ ম্যাচ শেষে জার্মানি মুখ কালো করে থাকাদের দলে থাকবে, সেটা মোটেও আঁচ করা যাচ্ছিল না প্রথমদিকে। শুরুর আধা ঘণ্টায় গোলে একটা শটও নিতে পারেনি এশিয়ার দল জাপান।

ওদিকে জার্মানি আক্রমণ সাজাচ্ছিল দারুণ পাসিং ফুটবলের পসরা সাজিয়ে। প্রথমার্ধে তারা পাসই খেলেছে ৪২২টা। ৩১ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল পেয়ে যায় তারা। এগিয়ে যায় ১-০ গোলে।

বিরতির একটু আগে কাই হ্যাভার্টজ যখন দ্বিতীয় বার জাপানের জালে বল জড়ান, তখন মনে হচ্ছিল ম্যাচটা বুঝি সহজেই জিতে যাচ্ছে ৪ বারের চ্যাম্পিয়নরা! তবে অফসাইডের খড়্গ তখন পথ আগলে দাঁড়ায় জার্মানদের। ১ গোলের লিড নিয়েই বিরতিতে যেতে হয় মুলারদের।

শুরুর অর্ধে জাপান নিজেদের ছায়া হয়েই ছিল অনেকটা। স্বরূপে ফিরল দ্বিতীয়ার্ধে। তবে জার্মানিও নিজেদের দ্বিতীয় গোলের সন্ধানে হন্যে হয়ে ছিল তখন। এ সময় পাল্টাপাল্টি বেশকিছু আক্রমণ হয়। ৬০ মিনিটে গুন্দোয়ানের শট প্রতিহত হয় জাপানের ক্রসবারে।

বারদুয়েক জাপান বেঁচে যায় ভাগ্যের জোরে। সেই সৌভাগ্যটাকে জাপানিরা কাজে লাগাল ম্যাচের শেষ দিকে। শুরুটা হলো রিতসু দোয়ানের গোল দিয়ে। তাকুমি মিনামিনোর শটটা ঠেকিয়ে দিলেও আলগা বলে দোয়ানের শটটা ঠেকাতে পারেননি ম্যানুয়েল নয়্যার। ১-১ সমতা ফিরিয়ে তখন রক্তের গন্ধ পেয়ে বসেছে জাপান।

জার্মানি আবারও এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল মিনিট দুই পরে। কিন্তু জশুয়া কিমিখের সেই কর্নারে ফাঁকায় থেকেও হেডটা লক্ষ্যে রাখতে পারেননি গুন্দোয়ান। জার্মানি তাদের সুযোগ কাজে লাগাতে পারেনি। জাপান পেরেছে। কউ ইতাকুরার বাড়ানো লং বল পেয়ে বক্সে ঢুকে পড়েন তাকুমা আসানো। দারুণ এক ফার্স্ট টাচে ছিটকে দেন ডিফেন্ডার নিকো শ্লটারবেককে, এরপর বক্সে ঢুকে দুরূহ এক কোণ থেকে করেন গোল। ২-১ এ এগিয়ে যায় নিশীথ সূর্যের দেশ। জার্মানির হারটাও নিশ্চিত হয়ে যায় তখনই।

জার্মানরা অবশ্য তখনও হার মেনে নেয়নি। শেষ কয়েক মিনিটে একটা গোলের জন্য মরিয়া চেষ্টা করেছে তারা। শেষ মুহূর্তে ম্যানুয়েল নয়্যারও উঠে এসেছিলেন আক্রমণে। তবে লাভ হয়নি। শেষ হাসি হেসেছে জাপানই। বিশ্বকাপ তাতে পেয়ে গেছে দ্বিতীয় অঘটনের দেখা।

 


আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.