আজ: রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ইং, ২২শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১২ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২২ ডিসেম্বর ২০২২, বৃহস্পতিবার |


kidarkar

কল ড্রপে ৪০ সেকেন্ড পর্যন্ত ক্ষতিপূরণ পাবে গ্রাহকরা


নিজস্ব প্রতিবেদক : অননেট অর্থাৎ একই কোম্পানির নম্বরে কথা বলা সময় কল ড্রপ হলে মোবাইল ফোন অপারেটর কোম্পানিগুলো গ্রাহককে ক্ষতিপূরণ দেবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ সংস্থা (বিটিআরসি)।

বৃহস্পতিবার (২২ ডিসেম্বর) এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে বিটিআরসি।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মোবাইল গ্রাহকেরা অননেট (একই মোবাইল অপারেটর) কলের ক্ষেত্রে দৈনিক প্রথম ও দ্বিতীয় কল ড্রপের জন্য ৩০ সেকেন্ড করে এবং তৃতীয় থেকে সপ্তম কল ড্রপের জন্য ৪০ সেকেন্ড করে ক্ষতিপূরণ পাবে। কল ড্রপ ও ক্ষতিপূরণের বিস্তারিত তথ্য জানতে *121*765# নম্বরে ডায়াল করতেও বলেছে বিটিআরসি। নাম্বারটিতে ডায়াল করে আগের দিন, সপ্তাহ বা মাসিক অননেট কল ড্রপের পরিমাণ জানতে পারবেন গ্রাহক।

জানা গেছে, গ্রাহকের কল ড্রপের ক্ষেত্রে ৬৫ শতাংশই ছিলে প্রথম কল ড্রপ। তবে, এতদিন কল ড্রপের জন্য কোনো ক্ষতিপূরণ দিতো না অপারেটর সংস্থাগুলো।

বিটিআরসি জানিয়েছে, অফনেট কল ড্রপের ক্ষতিপূরণও যেন গ্রাহক পেতে পারে সেজন্য কাজ করা হচ্ছে। তবে, অফনেট কল ড্রপের ক্ষেত্রে বাণিজ্যিক বিদ্যুৎ চলে যাওয়া, এনটিটিএন ফাইবার কাটায় নেটওয়ার্ক কাটা, ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ক মানসম্মত না হওয়া, যন্ত্রপাতি অচল হওয়া ও আইসিএক্স সুইচ ক্যাপাসিটিসহ বেশ কিছু কারণ রয়েছে।

বিটিআরসি বলছে, অফনেট কল ড্রপের ক্ষেত্রে প্রেরণকারী ও গ্রহণকারী যেকোনো অপারেটরের কারিগরি সীমাবদ্ধতার কারণে কল ড্রপ হতে পারে। নানা অংশীজন থাকায় অফনেট কল ড্রপের মূল কারণ বের করা এখন জটিল। তবে ‘টেলিকম মনিটরিং সিস্টেম’ বা টিএমএস প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে বিটিআরসি। যেখানে অফনেট কল ড্রপের কারণ শনাক্ত করা সহজ হবে এবং দায়ী প্রেরক ও গ্রাহক অপারেটরকে দায়বদ্ধতায় আনা যাবে।


আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.