আজ: রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ইং, ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৪ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০২ ফেব্রুয়ারী ২০১৬, মঙ্গলবার |

kidarkar

৯ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ

 

Arthik Protibadon Reportশেয়ারবাজার রিপোর্ট: দ্বিতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-ডিসেম্বর ১৫) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৯ কোম্পানি। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

 

লিবরা ইনফিউশন:

দ্বিতীয় প্রান্তিকে লিবরা ইনফিউশনের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৬৯ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের (এনওসিএফপিএস) পরিমাণ হয়েছে ৪৩.৫০ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১ হাজার ৫৭৬ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ১.৬৯ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ১১.১২ টাকা (মাইনাস) এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ পর্যন্ত এনএভি ছিলো ১ হাজার ৫৭৩ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ১.০০ টাকা।

এদিকে গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৫) এ কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ৮.১৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ০.৩০ টাকা।

তিতাস গ্যাস:

দ্বিতীয় প্রান্তিকে তিতাস গ্যাসের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৮৯ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের (এনওসিএফপিএস) পরিমাণ হয়েছে ৫.৫১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৫৮.৭৫ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ৪.২৫ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ৩.৫০ টাকা এবং ৩০ জুন ২০১৫ পর্যন্ত এনএভি ছিলো ৫৮.৩৬ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে ২.৩৬ টাকা।

এদিকে গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৫) এ কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ০.৩২ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ২.১৬ টাকা।

ফার কেমিক্যাল:

দ্বিতীয় প্রান্তিকে ফার কেমিক্যালের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৬৪ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের (এনওসিএফপিএস) পরিমাণ হয়েছে ০.৭১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৫.৭৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ১.১০ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ০.৩৭ টাকা এবং ৩০ জুন ২০১৫ পর্যন্ত এনএভি ছিলো ১৭.৬৬ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.৫৪ টাকা বা ৪৯.০৯ শতাংশ।

এদিকে গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৫) এ কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ০.৬৮ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ০.৮১ টাকা।

এ্যাপোলো ইস্পাত:

দ্বিতীয় প্রান্তিকে এ্যাপোলো ইস্পাতের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৮২ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের (এনওসিএফপিএস) পরিমাণ হয়েছে ১.৫৭ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে (including revaluation surplus) ৩০.০৬ টাকা এবং ৩০ জুন ২০১৫ পর্যন্ত এনএভি হয়েছে ২৪.৩৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ০.৬২ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ২.১৩ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৫ পর্যন্ত এনএভিপিএস (including revaluation surplus) ছিল ২৬.৫১ টাকা এবং ৩০ জুন ২০১৫ পর্যন্ত এনএভি ছিলো ২০.৪০ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ১.২০ টাকা বা ১৯৩.৫৫ শতাংশ।

এদিকে গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৫) এ কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ১.১০ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ০.২০ টাকা।

মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ:

দ্বিতীয় প্রান্তিকে মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৩৯ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের (এনওসিএফপিএস) পরিমাণ হয়েছে ০.৪২ টাকা (মাইনাস) এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৪৫.৫৮ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ০.১৪ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ০.৭৩ টাকা এবং ৩০ জুন ২০১৫ পর্যন্ত এনএভিপিএস ছিল ৪৫.১৯ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.২৫ টাকা বা ১৭৮.৫৭ শতাংশ।

এদিকে গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৫) এ কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ০.১৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ০.০৪ টাকা।

এপেক্স ফুডস:

আলোচিত প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১২.২৫ টাকা (উইথ ফেয়ার ভেল্যুয়েশন সারপ্লাস/ডিফিসিট) এবং কোম্পানিটির  শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ৩.৩৮ টাকা (উইথআউট ফেয়ার ভেল্যুয়েশন সারপ্লাস/ডিফিসিট)। যা আগের বছর একই সময় কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ১.১২ টাকা (উইথ ফেয়ার ভেল্যুয়েশন সারপ্লাস/ডিফিসিট) এবং ইপিএস ছিল ১.৬০ টাকা (উইথআউট ফেয়ার ভেল্যুয়েশন সারপ্লাস/ডিফিসিট)।

আর দ্বিতীয় প্রান্তিকে এপেক্স ফুডের শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ১৫.৭০ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১১৭.১৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে এনওসিএফপিএস ছিল ৭.৯৪ টাকা এবং ৩০ জুন ২০১৫ পর্যন্ত এনএভিপিএস ছিল ১০৯.১৬ টাকা।

এদিকে গত ৩ মাসে (অক্টোম্বর-ডিসেম্বর ১৫) কোম্পানিটি শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১১.৪৩ টাকা (উইথ ফেয়ার ভেল্যুয়েশন সারপ্লাস/ডিফিসিট) এবং শেয়ার প্রতি লোকসান ১.৪৮ টাকা (উইথআউট ফেয়ার ভেল্যুয়েশন সারপ্লাস/ডিফিসিট)। যা আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকাসন ছিল ০.৪৩ টাকা (উইথ ফেয়ার ভেল্যুয়েশন সারপ্লাস/ডিফিসিট) এবং ইপিএস ০.৬৯ টাকা (উইথআউট ফেয়ার ভেল্যুয়েশন সারপ্লাস/ডিফিসিট)।

রহিমা ফুড:

দ্বিতীয় প্রান্তিকে রহিমা ফুডের শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.৩৩ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.০১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২.৮৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ০.২১ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ০.০৩ টাকা এবং ৩০ জুন ২০১৫ পর্যন্ত এনএভিপিএস ছিল ২.৯৮ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান বেড়েছে ০.১২ টাকা।

এদিকে গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.১৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ছিল ০.১১ টাকা।

এপেক্স স্পিনিং:

আলোচিত প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে হয়েছে ০.৫৩ টাকা (উইথ ফেয়ার ভেল্যুয়েশন সারপ্লাস/ডিফিসিট)। এছাড়া কোম্পানিটির  ইপিএস হয়েছে ০.৯১ টাকা (উইথআউট ফেয়ার ভেল্যুয়েশন সারপ্লাস/ডিফিসিট)। যা আগের বছর একই সময় কোম্পানিটির ইপিএস (ইপিএস উইথ ফেয়ার ভেল্যুয়েশন সারপ্লাস/ডিফিসিট) ছিল ০.৫৫ টাকা এবং ইপিএস (উইথআউট ফেয়ার ভেল্যুয়েশন সারপ্লাস/ডিফিসিট)  ছিল ০.৬৮ টাকা।

এদিকে গত ৯ মাসে (এপ্রিল-ডিসেম্বর ১৫) কোম্পানিটি শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৪৪ টাকা (উইথ ফেয়ার ভেল্যুয়েশন সারপ্লাস/ডিফিসিট) এবং ইপিএস ২০.১ টাকা (উইথআউট ফেয়ার ভেল্যুয়েশন সারপ্লাস/ডিফিসিট)। যা আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ১.২৬ টাকা (উইথ ফেয়ার ভেল্যুয়েশন সারপ্লাস/ডিফিসিট) এবং ইপিএস ১.৭১ টাকা (উইথআউট ফেয়ার ভেল্যুয়েশন সারপ্লাস/ডিফিসিট)।

সমতা লেদার:

দ্বিতীয় প্রান্তিকে সমতা লেদারের শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.০০৩ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৪.৭৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে লোকসানের পরিমান ছিল ০.০২৩ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ পর্যন্ত এনএভি ছিলো ১৪.৯৮ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির লোকসান কমেছে ০.০২০ টাকা।

এদিকে গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৫) এ কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ০.০০৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ০.০০৪ টাকা।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

 

 

 

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.