আজ: শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১ইং, ৩১শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৩০শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০২ মার্চ ২০১৫, সোমবার |


পেঁপের গুনাগুণ

papayaশেয়াবাজার ডেস্ক: পাকা পেঁপে অনেকেরই বেশ প্রিয় একটি ফল। বাড়ির আশেপাশে কয়েকটি গাছ লাগালেই সারা বছর পাওয়া যাবে ফলটি। পেঁপের সবচাইতে ভালো দিকটি হলো এটি দুই ভাবে খাওয়া যায়। কাঁচা হলে সবজি হিসেবে খাওয়া যায় এবং পাকা হলে ফল হিসেবে। দুটি রূপেই পেঁপের স্বাদ অসাধারণ।

পেঁপের যে শুধু স্বাদ অসাধারণ তাই নয় পেঁপের রয়েছে অনেক অসাধারণ সব স্বাস্থ্যগুণ, যা সম্পর্কে অনেকেই জানেন না। তাহলে, চলুন এবার সাধারণ পেঁপের অসাধারণ স্বাস্থ্যগুণগুলো জেনে নেয়া যাক।

রক্তের কলেস্টোরল দূর করতে বিশেষভাবে কার্যকরী
পেঁপে দুটি উপায়ে রক্তের কলেস্টোরল দূর করে। প্রথমত, পেঁপের ফাইবার শিরা উপশিরার গা থেকে কলেস্টোরল দূর করে এবং দ্বিতীয়ত, পেঁপের এনজাইম ফ্যাট কোষগুলোকে অক্সিডেশনের মাধ্যমে শিরা উপশিরা বল্ক করতে বাঁধা প্রদান করে।

হজমে সহায়তা করে
পেঁপের মধ্যে রয়েছে পাপাইন যা, হজমে সহায়তা করে এবং এর স্যলুবল ফাইবার কোষ্ঠকাঠিন্যের হাত থেকে রক্ষা করে।

কোলনের ইনফেকশন দূর করে
পেঁপের জুস সবচাইতে কার্যকরী কোলন পরিষ্কারক পানীয়। কারণ পেঁপের জুস কোলনের মিউকাস দ্রুত দূর করে কোলন পরিষ্কার করে ইনফেকশন দূর করে।

হাতে পায়ের জয়েন্টে ব্যথা ও বাতের ব্যথার উপশম করে
পেঁপেতে রয়েছে অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি উপাদান যা প্রদাহ এবং প্রদাহজনিত ব্যথা দূর করতে সহায়তা করে। এই একই ধরণের এনজাইম সমূহ ক্যান্সার ও অস্টিওপোরোসিস থেকে মুক্ত রাখতে সহায়তা করে।

ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহায়তা করে
প্রচুর ভিটামিন ও নিউট্রিয়েন্টসে ভরপুর পেঁপে অল্প পরিমাণে খেলেই পেট ভরে যায় এবং ক্ষুধার উদ্রেক হয় না। এতে করে অস্বাস্থ্যকর খাবার কম খাওয়া হয় ও ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে।

বমি ভাব ও সকালের অসুস্থতা দূর করে
অনেক নারী আছেন সকালে ঘুম থেকে উঠলে বমি ভাব হয় এবং অসুস্থতা ভর করে। তারা পেঁপে খেলে বা পেঁপের জুস তৈরি করে খেলে এর থেকে মুক্তি পাবেন সহজেই। গর্ভবতী নারীরা দূরে থাকবেন।

মেয়েদের মাসিক ও মাসিকজনিত সমস্যা দূর করে
কাঁচা পেঁপে মেয়েদের মাসিক নিয়মিত হতে সহায়তা করে। এছাড়াও এটি মাসিকের সময়ের অসহ্য পেটে ব্যথা, পিঠে ব্যথা ও হাড়ের জয়েন্টে ব্যথাও দূর করতে সহায়তা করে।

শেয়ারবাজার/মু

 

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.