আজ: মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১ইং, ৮ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৫ জানুয়ারী ২০১৫, সোমবার |


kidarkar

‘বাংলাদেশ গেমফেস্ট ২০১৪’ সম্পন্ন

987e5ab22b344b02c75f94b933ee9cd2-5ডেস্ক নিউজ: টান টান উত্তেজনাই ছিল কম্পিউটার গেমারদের মধ্যে। নেটওয়ার্কে বসে গেম খেলার উত্তেজনাটা আলাদা। গেমাররা নেটওয়ার্কে বসে গেম খেলার প্রতিযোগিতা করতে পেরেছেন দুই দিনের ‘বাংলাদেশ গেমফেস্ট ২০১৪-১৫’-এ। ঢাকার কুড়িলে সাদ আবু মূসা সিটি সেন্টারে গতকাল শনিবার শেষ হয়েছে এই আয়োজন। এর আগে ২৬ ও ২৭ ডিসেম্বর শেষ হয় উৎসবের প্রথম পর্ব। এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছিল ইভেন্টাস। প্রতিযোগিতায় ২৬৮ জন অংশ নেন তিনটি গেমে। কাল রাতে চূড়ান্ত প্রতিযোগিতার ফলাফল ঘোষণা করা হয়। লিগ অফ লিজেন্ডস গেমে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ‘নক্স-ইগনিস এলিমেনশিয়া দল। তারা পেয়েছে ৩০ হাজার টাকা। ডোটা-টু গেমের সেরা দল ডোটা কাউন্সিল। এ পুরস্কারও ছিল ৩০ হাজার টাকার। ফিফা ১৫-এর চ্যাম্পিয়ন আরভিম্যাক্স দল পেয়েছে ২০ হাজার টাকা। বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন ব্ল্যাক ব্যান্ডের সদস্যরা এবং এডিসন গ্রুপের উপমহাব্যবস্থাপক শাহরিয়ার সাত্তার। সবশেষে ছিল ব্ল্যাক ও আরবো ভাইরাস ব্যান্ডের পরিবেশনা। নেটওয়ার্কে এই গেম খেলার প্রতিযোগিতার ব্যাপারে ইভেনটাস গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ মাহমুদ মুন্তাকিম বলেন, ‘আমাদের দেশে অনেক ভালো মানের গেমার রয়েছেন। নিজেদের মেলে ধরার সুযোগ পেলেই তাঁরা ই-গেমিংয়ের একেকজন “সাকিব আল হাসান” হয়ে উঠবেন। এতে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের পরিচিতি বাড়বে।’ গেম প্রতিযোগিতা ছাড়াও এ উৎসব প্রাঙ্গণে ছিল ২০টি স্টল। গেমের বিভিন্ন চরিত্রের পোশাক, কম্পিউটার গেমস, আর্কেড গেমস, পোস্টার, স্টিকারসহ নানা কিছুর পসরা বসেছিল সেখানে। ডোটা কাউন্সিল দলের দলনেতা রাহিব রেজা প্রথম আলোকে বলেন, ‘এ ধরনের উৎসব আমাদের জন্য একেবারেই নতুন। বর্তমান সময়ে ইলেকট্রনিক বা কম্পিউটার গেমের প্রতি সব বয়সী মানুষের আগ্রহ সৃষ্টি হচ্ছে। উপযুক্ত পৃষ্ঠপোষকতা ও উৎসাহ পেলে আমাদের তরুণেরা ই-গেম খেলায় অনেক সাফল্য পাবে।’

এ উৎসবের সহযোগী ছিল কোকাকোলা, সিম্ফনি, মো ম্যাজিক এবং এয়ারটেল।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.