আজ: সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১ইং, ১৮ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২২শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১৪ মার্চ ২০১৫, শনিবার |



kidarkar

গ্রেফতার হলেন সালমান

salman Arrest01শেয়ারবাজার ডেস্ক: মামলা নিয়ে কয়েকদিন যাবৎ বেশ ভোগান্তিতে ছিলেন সালমান খান। অবশেষে যাও স্বস্তির আভাস দেখা যাচ্ছিল সেটা আর হলো না। শুক্রবার নিজের উকিলের বাসা থেকে গ্রেফতার হয়েছেন তিনি।

মুম্বাই পুলিশ জানিয়েছে, বলিউডের এই বিগ সুপারস্টার ২০০২ সালে ২৮ সেপ্টেম্বর ভোররাতে বান্দ্রায় একটি বেকারির সামনে ফুটপাতে ঘুমিয়ে ছিলেন পাঁচজন হতদরিদ্র মানুষ। সে সময় সালমানের টয়োটা ল্যান্ড ক্রুজার গাড়িটি তাঁদের চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। মর্মান্তিক সেই দুর্ঘটনায় একজন নিহত ও চারজন আহত হন।

বরাবরই সালমানের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, দুর্ঘটনার সময় তিনি চালকের আসনে ছিলেন না। কিন্তু তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, দুর্ঘটনার সময় মদ্যপ অবস্থায় ঘণ্টায় প্রায় ১০০ কিলোমিটার গতিবেগে গাড়ি চালাচ্ছিলেন তিনি। বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালানোর একপর্যায়ে গাড়ির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফুটপাতের ওপর ঘুমিয়ে থাকা মানুষদের চাপা দিলে হতাহতের ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনার সময় সালমানের সঙ্গেই গাড়িতে ছিলেন পুলিশ দেহরক্ষী প্রয়াত রবীন্দ্র পাতিল। তিনি বারবার সালমানকে বেপরোয়া গতিতে গাড়ি না চালাতে অনুরোধ করলেও, তা শোনেননি মাতাল সালমান। গাড়িচাপা দিয়ে মানুষ হত্যার অভিযোগে সালমান খানের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার কার্যক্রম চলছে বছরের পর বছর ধরে।

২০০৫ সালে সালমানের বিচার কার্যক্রম শুরু হয়। তাঁর প্রতি নমনীয় আচরণ করেন আদালত। বেপরোয়া ও অসতর্কভাবে গাড়ি চালানোর কারণে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে বলে রায় দেওয়া হয়। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০৪ (১) ধারায় এ ধরনের অপরাধের সর্বোচ্চ সাজা মাত্র দুই বছরের কারাদণ্ড।

পরবর্তী সময়ে ২০১১ সালে সালমানকে কঠোর সাজা প্রদানের দাবি তোলা হয় মুম্বাই পুলিশের পক্ষ থেকে। পরে মামলাটির বিচার কার্যক্রম আবার শুরু হয়। যথেষ্ট সাক্ষ্য-প্রমাণ পাওয়ার পর ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০৪ (২) ধারায় সালমানের বিচারকার্যক্রম চালানোর নির্দেশ দেন মুম্বাই সেশন কোর্টের বিচারক ইউবি হেজিব।

শেয়ারবাজার/রা

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.