৫ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ

report1শেয়ারবাজার ডেস্ক: ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত পাঁচ কোম্পানি। এগুলো হলো: ইউনিয়ন ক্যাপিটাল, বিট্রিশ আমেরিকান টোব্যাকো, উত্তরা ব্যাংক, হাইডেলবার্গ সিমেন্ট এবং ব্যাংক এশিয়া। প্রতিবেদন অনুযায়ী ৪ কোম্পানির বাড়লেও কমেছে হাইডেলবার্গ সিমেন্টর আয়। সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ইউনিয়ন ক্যাপিটাল:

সমাপ্ত অর্থবছরে ইউনিয়ন ক্যাপিটালের কর পরিশোধের পর মুনাফা হয়েছে ১৯ কোটি ৯৯ লাখ ৯০ হাজার টাকা এবং শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৬৫ টাকা। যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ১৪ কোটি ১৭ লাখ ৬০ হাজার টাকা এবং ইপিএস ছিল ১.১৭ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির আয় বেড়েছে ৫ কোটি ৮২ লাখ ৩০ হাজার টাকা এবং ইপিএস বেড়েছে ০.৪৮ টাকা। আর বছর শেষে কোম্পানিটির রিটেইন আর্নিংস বা অবন্টিত মুনাফা দাঁড়িয়েছে ১৭ কোটি ২৩ লাখ ১০ হাজার টাকা।

এদিকে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে বিনিয়োগকারীদের জন্য ঘোষিত ১০ শতাংশ বোনাস শেয়ার হিসেবে ইউনিয়ন ক্যাপিটালের ইপিএস (diluted) দাঁড়িয়েছে ১.৫০ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ছিল ১.০৭ টাকা।

বিট্রিশ আমেরিকান ট্যোবাকো:

সমাপ্ত অর্থবছরে বিট্রিশ আমেরিকান ট্যোবাকো বাংলাদেশ লিমিটেডের কর পরিশোধের পর মুনাফা হয়েছে ৬২৮ কোটি ১৯ লাখ ২০ হাজার টাকা এবং শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১০৪.৭০ টাকা। যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ৪৮৬কোটি ৮৬ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং ইপিএস ছিল ৮১.১৪ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির আয় বেড়েছে ১৪১ কোটি ৩২ লাখ ৭০ হাজার টাকা এবং ইপিএস বেড়েছে ২৩.৫৬ টাকা। আর বছর শেষে কোম্পানিটির রিটেইন আর্নিংস বা অবন্টিত মুনাফা দাড়িয়েছে ১ হাজার ৭৯ কোটি ৮৬ লাখ ২০ হাজার টাকা।

উত্তরা ব্যাংক:

সমাপ্ত অর্থবছরে উত্তরা ব্যাংক লিমিটেডের কর পরিশোধের পর মুনাফা (নন-কনটোলিং ইন্টারেস্ট) হয়েছে ১৪০ কোটি ৪২ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.৫১ টাকা। যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ১৩১ কোটি ৯৪ লাখ ৭০ হাজার টাকা এবং ইপিএস ছিল ৩.৩০ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির আয় বেড়েছে ৮ কোটি ৪৭ লাখ ৮০ হাজার টাকা এবং ইপিএস বেড়েছে ০.২১ টাকা। আর বছর শেষে কোম্পানিটির রিটেইন আর্নিংস বা অবন্টিত মুনাফা দাড়িয়েছে ১০৯ কোটি ৭৬ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

হাইডেলবার্গ সিমেন্ট:

সমাপ্ত অর্থবছরে হাইডেলবার্গ সিমেন্টে কর পরিশোধের পর মুনাফা হয়েছে ১১৭ কোটি ৯৫ লাখ ৬০ হাজার টাকা এবং শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২০.৮৮ টাকা। যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ১৪৭ কোটি ৪০ লাখ ৮০ হাজার টাকা এবং ইপিএস ছিল ২৬.০৯ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির আয় কমেছে ২৯ কোটি ৪৫ লাখ ২০ হাজার টাকা এবং ইপিএস কমেছে ৫.২১ টাকা। আর বছর শেষে কোম্পানিটির রিটেইন আর্নিংস বা অবন্টিত মুনাফা দাড়িয়েছে ৫৩২ কোটি ৯৭ লাখ ১০ হাজার টাকা।

ব্যাংক এশিয়া:

সমাপ্ত অর্থবছরে ব্যাংক এশিয়ার কর পরিশোধের পর মুনাফা হয়েছে ২০১ কোটি ২৫ লাখ ৬০ হাজার টাকা এবং শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৬৪ টাকা। যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ১৩৩ কোটি ৫ লাখ ৪০ হাজার টাকা এবং ইপিএস ছিল ১.৭৪ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির আয় বেড়েছে ৬৮ কোটি ২০ লাখ ২০ হাজার টাকা এবং ইপিএস বেড়েছে ০.৯০ টাকা। আর বছর শেষে কোম্পানিটির রিটেইন আর্নিংস বা অবন্টিত মুনাফা দাঁড়িয়েছে ১২২ কোটি ৯২ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

এদিকে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে বিনিয়োগকারীদের জন্য ঘোষিত ১০ শতাংশ বোনাস শেয়ার হিসেবে ব্যাংক এশিয়ার ইপিএস (diluted) দাঁড়িয়েছে ২.৪০ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ছিল ১.৫৯ টাকা।

শেয়ারবাজার/অ

 

আপনার মন্তব্য

Top